‘ডিসেম্বরে কিছুই টিকবে না’

 

গণতন্ত্র মঞ্চের নেতারা সরকারকে উদ্দেশ করে বলেছেন, ‘আপনারা বলছেন, খেলা হবে। যদি রাজনীতির খেলায় আসেন, তাহলে জনগণের প্রতিরোধের সামনে টিকতে পারবেন না। যতই ধর্মঘট আর অবরোধ দিয়ে ঠেকানোর চেষ্টা করেন, ডিসেম্বরে কোনো কিছুই টিকবে না। এবারের খেলায় জনগণ জিতবে।’

বৃহস্পতিবার রাজধানীর পল্টন মোড়ে এক সমাবেশে গণতন্ত্র মঞ্চের নেতারা এসব কথা বলেন। শহিদ নূর হোসেন দিবস উপলক্ষ্যে সমাবেশের আয়োজন করা হয়। এর আগে মঞ্চের পক্ষ থেকে নূর হোসেন চত্বরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন নেতারা।

linkedin sharing button
‘ডিসেম্বরে কিছুই টিকবে না’

গণ অধিকার পরিষদের সদস্য সচিব নুরুল হক নূরের সভাপতিত্বে ও নাগরিক ঐক্যের সাংগঠনিক সম্পাদক সাকিব আনোয়ারের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য দেন, নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না, সাধারণ সম্পাদক শহীদুল্লাহ কায়সার, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য বাচ্চু ভূঁইয়া, ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহ্বায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক হাসনাত কাইয়ূম, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- জেএসডির কার্যকরী সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন, সাংগঠনিক সম্পাদক মোশাররফ হোসেন, গণঅধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মুহম্মদ রাশেদ খান প্রমুখ।

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘আইএমএফ সাড়ে চার হাজার বিলিয়ন ডলার ঋণ দিতে রাজি হয়েছে। এ নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতা-মন্ত্রীরা, এমনকি প্রধানমন্ত্রী কী যে গলাবাজি করে তা জানি না। প্রথম পরামর্শ হচ্ছে রিজার্ভ বেচে খাবেন না। আমাদের সরকার রিজার্ভ বেচে। এজন্য বাংলাদেশে সত্যি সত্যিই রিজার্ভ কত তা কেউ বলতে পারে না।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপির নেতাদের বলেছি যুগপৎ আন্দোলনে আমরা আপনাদের পাশে আছি। তাদের সঙ্গে ১৫ নভেম্বর বসতে চাই। আমরা কোনো পদ-পদবি, মন্ত্রিত্ব চাই না। আমরা দাঁড়িয়েছি এই সমাজ বদলাতে। সংবিধান, আইন বদলাতে। যাতে জনগণের কল্যাণ হবে। দেশের আপামর জনতা এই সরকারের পতন চায়।’

সাইফুল হক বলেন, ‘বর্তমান ক্ষমতাসীনরা প্রাতিষ্ঠানিক স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছে। যখন যে সরকারই ক্ষমতায় এসেছে, তারা যেকোনো মূল্যে ক্ষমতায় থাকার পথ তৈরি করার চেষ্টা করেছে। এজন্য সরকার পতনের সঙ্গে সঙ্গে শাসন ব্যবস্থার পরিবর্তন করতে হবে। সেটা না করা গেলে, সত্যিকারের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা যাবে না।’

জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘এই সরকারের মদদপুষ্ট গোষ্ঠী লুটপাট, দুর্নীতির মাধ্যমে দেশকে দুর্ভিক্ষের দিকে ঠেলে দিয়েছে। তাদের উন্নয়নের বয়ান এখন আর মানুষ বিশ্বাস করে না। দেশের জনগণকে আর বেঁধে রাখা যাবে না। এবার তারা স্বৈরাচারকে বিদায় করে সত্যিকারের গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করবে। আর সেই লড়াইয়ে নেতৃত্ব দেবে গণতন্ত্র মঞ্চ।’

সর্বশেষ