ভারতকে উড়িয়ে বিশ্বকাপ ফাইনালে ইংল্যান্ড

অদ্ভুত সব আপসেটের জন্ম দিয়েছে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সময় যত গড়িয়েছে ততই বদল গেছে সব হিসাব-নিকাশ আর প্রেডিকশন। যে পাকিস্তান সুপার টুয়েলভ থেকেই বাদ পড়ে যাচ্ছিল, তারাই প্রথম দল হিসেবে উঠেছে ফাইনালে। এবার আগামী ১৩ নভেম্বর মেলবোর্নে অনুষ্ঠিতব্য শিরোপার লড়াইয়ে তাদের সঙ্গী হলো ইংল্যান্ড।

আজ বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় সেমিফাইনালে বাটলার-হেলসের বিধ্বংসী ব্যাটে ভারতকে ১০ উইকেটে উড়িয়ে দিয়েছে জস বাটলারের দল।

 

ভারতকে ১০ উইকেটে উড়িয়ে বিশ্বকাপ ফাইনালে ইংল্যান্ড

ছবি : এএফপি

অ্যাডিলেডে রান তাড়ায় নেমে ইংল্যান্ডের শুরুটা হয় স্বপ্নের মতো। অধিনায়ক জস বাটলার ও অ্যালেক্স হেলসের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে তরতর করে এগোতে থাকে ওপেনিং জুটি। পাওয়ার প্লেতেই আসে ৬৩ রান। ২৮ বলে ফিফটি তুলে নেন হেলস। ১০.১ ওভারেই তিন অঙ্কে পৌঁছে যায় ওপেনিং জুটি। ভারতীয় বোলাররা পাত্তাই পাচ্ছিলেন না। ৩৬ বলে বাটলারও ফিফটি পূরণ করেন। এই জুটিতেই ১০ উইকেট এবং ২৪ বল হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। অধিনায়ক বাটলার ৪৯ বলে ৯ চার ৩ ছক্কায় ৮০ এবং হেলস ৪৭ বলে ৪ চার ৭ ছক্কায় ৮৬ রানে অপরাজিত থাকেন। ভারতের বোলাররা প্রায় সবাই বেদম মার খেয়েছেন।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৬৮ রান তোলে ভারত। এদিন ভারতের দুই ওপেনারই ব্যর্থ। লোকেশ রাহুল ৫ আর রোহিত শর্মা ২৮ বলে ২৭ রানের ধীরগতির ইনিংস খেলে ফেরেন। পুরো টুর্নামেন্টে বিধ্বংসী ব্যাটিং করা সূর্যকুমার যাদব ১০ বলে ১ চার ১ ছক্কায় ১৪ রান করে আদিল রশিদের শিকার হয়েছেন। তিনে নেমে দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৩৯ বলে ফিফটি তুলে নেন কোহলি। তার সঙ্গে হার্দিক পান্ডিয়ার চতুর্থ উইকেট জুটিতে আসে ৪০ বলে ৬০ রান। ২৯ বলে ফিফটি তুলে নেওয়া হার্দিক ৩৩ বলে ৪ বাউন্ডারি এবং ৫ ওভার বাউন্ডারিতে ৬৩ রানের ইনিংস খেলেন। ইংল্যান্ডের জর্ডান ৩ উইকেট নিলেও রান দিয়েছেন ৪৩।

সর্বশেষ