পুলিশের বিশেষ কল্যাণ সভায় অসম্ভবকে সম্ভব করা যায়:ডিএমপি কমিশনার

হাসানুজ্জামান সুমন,বিশেষ-প্রতিনিধি:
ফোর্সের মানসিক শক্তি ও ইচ্ছা থাকলে যেকোনো অজেয়কে জয় করা সম্ভব বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক বিপিএম-বার, পিপিএম। এজন্য ফোর্সের সাথে কখনো সন্তান, কখনো ভাই, কখনো বন্ধুর মতো মিশতে হবে। তাদের ইচ্ছা শক্তিকে কাজে লাগাতে হবে। আবার দায়িত্ব পালনের সময় কমান্ডারের অবস্থানটা ধরে রাখতে হবে।
ডিএমপির কমিশনার হিসেবে দায়িত্বগ্রহণের পর মিরপুর পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্ট (পিওএম) পুলিশ লাইন্সে সর্বস্তরের পুলিশ সদস্যদের সাথে এক বিশেষ কল্যাণ সভায় এ কথা বলেন তিনি।
তিনি বলেন, কনস্টবল থেকে আইজিপি সকলে পুলিশ, সকলে একটি পরিবার। শরীরের কোন অঙ্গে আঘাত পেলে যেমন পুরো শরীরটা কষ্ট পায় তেমনি কনস্টবলের গায়ে আঘাত লাগলে সেটা কমিশনারের গায়ে লাগে। পুলিশের ইজ্জত রক্ষা করতে হবে; ইউনিফর্মের সম্মান রক্ষা করতে হবে।
দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে কোন বিপদ-আপদ আসলে বা ব্যক্তিগত কিংবা পারিবারিক সমস্যায় সবসময় তিনি পাশে থাকবেন বলে সকলকে আশ্বস্ত করেন। তবে ইউনিফর্মের আড়ালে কোন অপরাধে জড়িয়ে পড়লে কোন ছাড় দেওয়া হবেনা বলে তিনি সতর্ক করেন। তিনি বলেন, আমাদের এমনভাবে দায়িত্বপালন করা উচিত যেন অবসরে যাওয়ার পরেও মানুষ আমাদেরকে মনে রাখে।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় কখনোই ব্যর্থ হয় না। মহান স্বাধীনতার সশস্ত্র যুদ্ধের প্রথম প্রতিরোধকারীর গৌরবময় অংশীদার পুলিশ। সেই ৭১ থেকে আজ পর্যন্ত যেকোনো ক্রান্তিলগ্নে পুলিশ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সার্বভৌমত্ব ক্ষুন্ন হতে দেয়নি। ১৩/১৪ এর অগ্নিসংযোগ, বোমা হামলা, জঙ্গি বা কোভিডের মতো প্রাকৃতিক মহামারি কোন কিছুই পুলিশের মনোবলে চিড় ধরাতে পারেনি। সরকার যখন যে দায়িত্ব প্রদান করেছে তা অত্যন্ত নিষ্ঠা ও সফলতার সাথে পালন করেছে এবং আগামীতেও করবে।
বিশেষ কল্যাণ সভার শুরুতে অপরাধ ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় অভূতপূর্ব অভিজ্ঞতা সম্পন্ন আইকনিক পুলিশ অফিসার খন্দকার গোলাম ফারুক বিপিএম-বার, পিপিএম এর বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের উপর সংক্ষিপ্ত প্রামণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। পিওএম এর সাংগঠনিক কাঠামো ও দৈনন্দিন বিশাল কর্মযজ্ঞ উপস্থাপন করেন উপ-পুলিশ কমিশনার (পিওএম-উত্তর) খোন্দকার নজমুল হাসান পিপিএম-বার।
উপ-পুলিশ কমিশনার (পিওএম-দক্ষিণ)মোহাম্মদ মতিয়ার রহমানের সঞ্চালনায় বিশেষ কল্যাণ সভায় সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (অ্যাডমিন) মীর রেজাউল আলম, বিপিএম(বার)।
বিশেষ কল্যাণ সভায় ডিএমপির বিভিন্ন পদমর্যাদার সদস্যগণ তাদের সুনির্দিষ্ট কিছু সমস্যা ও চাহিদার কথা কমিশনারের নিকট পেশ করেন। কমিশনার সকলের বক্তব্য মনোযোগ সহকারে শোনেন এবং প্রত্যেকটি সমস্যা সমাধানের ব্যাপারে সকলকে আশ্বস্ত করেন।
বিশেষ কল্যাণ সভায় ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম) মোঃ আসাদুজ্জামান বিপিএম-বার; অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার(গোয়েন্দা)মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বিপিএম-বার, পিপিএম(বার) সহ যুগ্ম-পুলিশ কমিশনারগণ, উপ-পুলিশ কমিশনারগণসহ বিভিন্ন পদমর্যাদার পুলিশ সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ