বরিশালে বিএনপির গণসমাবেশ আজ

বরিশালে বিএনপির সমাবেশে যাওয়ার পথে বিএনপি নেতা ইশরাক হোসেনের গাড়ি বহরে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। গাড়িতে থাকা কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। আজ শনিবার ভোররাতে বরিশালের গৌরনদীতে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে বিএনপি মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান জানান, বরিশালের বিভাগীয় গণসমাবেশে অংশ নিতে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাত ঢাকা থেকে বরিশাল যাওয়ার পথে গৌরনদী বাসস্ট্যান্ডে বাধার শিকার হন। সেখানে ৫০/৬০ জন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তার গাড়ি থামিয়ে হামলার হুমকি দেয়। গালিগালাজ করে তাকে ঢাকায় ফিরে যেতে বলে। ইশতিয়াক আজিজ নিজেকে মুক্তিযোদ্ধা পরিচয় দিলেও তাকে ঢাকায় দিকে ফিরে যেতে বলে। তিনি বরিশালে যেতে না পেরে গাড়ি ঘুরিয়ে ঢাকায় ফিরে যান।

বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক কমিটির সদস্য ইশরাক হোসেন বরিশাল বিএনপির সমাবেশের উদ্দেশে ঢাকা থেকে গাড়িবহর নিয়ে রওনা হন। পথে ব্যাপক বাধার সম্মুখীন হয় গাড়িবহরটি। পরে গাড়িবহর বরিশালের কাছাকাছি গৌরনদীর মাহিলারা বাজারে পৌঁছালে সেখানে দুর্বৃত্তরা হামলা করে। হামলায় ইশরাক হোসেন অক্ষত থাকলেও ভাঙচুর করা হয় তার গাড়িবহরের বেশ কয়েকটি গাড়ি। ওইসব গাড়িতে থাকা কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছে বলেও খবর পাওয়া গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ইসরাক বলেন, ‘সমাবেশস্থলে যাওয়ার পথে পথে স্থানীয় আওয়ামী লীগ-যুবলীগ এবং ছাত্রলীগ বাধা সৃষ্টি করছে। কাপুরুষের মতো রাতের আঁধারে গাড়িবহরে চোরাগুপ্তা হামলা করে পালিয়ে যাচ্ছে। এর মাধ্যমে আমাদের নেতাকর্মীদের মনে ভীতি সঞ্চারের চেষ্টা করছে। কিন্তু আমরা দমে যাওয়ার পাত্র নই। সব বাধা মোকাবেলা করে ঠিকই সমাবেশস্থলে এগিয়ে যাচ্ছি। যত হামলা করুক না কেন, কোনো বাধাই এবার বিএনপি নেতা-কর্মীদের দমাতে পারবে না। ’

হামলায় আহতরা হলেন, ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির ৩৮ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক সহিদুল হক সহিদ, ৩৮ নং ওয়ার্ড বিএনপি নেতা মামুন ভূঁইয়া, রকি, কর্মী মো. রাসেল, মো. বাবুল ও খোকন। ৪০ নং ওয়ার্ড বিএনপি নেতা ইমরান ৪২ নং ওয়ার্ড যুবদল সদস্য সচিব মাসুদ রানা, সোহরাওয়ার্দী কলেজ ছাত্রদল নেতা রকি ও আল আমিনসহ প্রমুখ।

সূত্র: দেশ রূপান্তর

সর্বশেষ