বঙ্গবন্ধু ছিলেন অসাম্প্রদায়িক কল্যাণ রাষ্ট্রের স্বপ্নদ্রষ্টা: ড.কলিমউল্লাহ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০২ তম জন্মোৎসব উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ সেমিনারের ৪৫৬তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, ইউএন ডিজএ্যাবিলিটি রাইটস চ্যাম্পিয়ন ও অনারারি প্রফেসর আবদুস সাত্তার দুলাল এবং গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক ড.জেবউননেসা, শিল্প উদ্যোক্তা তাসলিমা ফেরদৌস ও নারী উদ্যোক্তা আমাতুন নূর শিল্পী
সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, কুষ্টিয়া থেকে সিনিয়র সাংবাদিক হুমায়ুন কবির এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, গোপালগঞ্জস্থ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পিএইচডি গবেষক প্রশান্ত কুমার সরকার।

সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন অসাম্প্রদায়িক কল্যাণ রাষ্ট্রের স্বপ্নদ্রষ্টা।বাঙালির অধিকার আদায়ের আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় বিকশিত হয়েছে বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক কল্যাণ রাষ্ট্রের দর্শন, যার মূর্ত রূপ ছিল ১৯৭২-এর সংবিধান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আবদুস সাত্তার দুলাল বলেন,’৭১-এর মার্চে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শুধু স্বাধীনতার ডাক দেননি, ‘মুক্তির সংগ্রামের’ও ডাক দিয়েছিলেন। ভৌগোলিক ও রাজনৈতিক স্বাধীনতার পাশাপাশি এই মুক্তিসংগ্রামের ডাক ছিল সব অর্থনৈতিক বৈষম্য থেকে মুক্তি, সামাজিক অসাম্য, ধর্মীয় বিভাজন, জাতিগত নিপীড়ন, কূপমণ্ডূকতা ও ধর্মান্ধতা থেকে মুক্তি। আমরা এখনো মুক্তি পাইনি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে দূরে সরে যাওয়াই এর কারণ।
অধ্যাপক ড.জেবউননেসা বলেন, ধর্মীয় বিভাজনের ঊর্ধ্বে ওঠে বাঙালিত্বের চেতনায় জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে হবে পরবর্তী প্রজন্মকে।
আমাতুন নূর বলেন,বিভাজনের মৌলবাদী সাম্প্রদায়িক শক্তির প্রাবল্যকে রুখে দিতে হবে মুজিব চেতনায়।

প্রশান্ত কুমার সরকার বঙ্গবন্ধুকে উদ্ধৃত করে বলেন,’আমার রাষ্ট্র হবে ধর্মনিরপেক্ষ। মানে ধর্মহীনতা নয়। মুসলমান তার ধর্ম-কর্ম পালন করবে, হিন্দু তার ধর্ম-কর্ম পালন করবে, বুদ্ধিস্ট তার ধর্ম-কর্ম পালন করবে। কেউ কাউকে বাধা দিতে পারবে না। তবে একটা কথা হলো, এই ধর্মের নামে আর ব্যবসা করা যাবে না।’

সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন আমেরিকার মিলেনিয়াম টিভির কান্ট্রি ডিরেক্টর ও রয়্যাল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক ড. দিপু সিদ্দিকী।
সেমিনারে অন্যন্যের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত প্রকৌশলী শাফিউল বাশার, রাজশাহী থেকে ডা.মনোয়ার ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ডা.বায়েজিদা ফারজানা।

সর্বশেষ