রংপুরে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিসহ নানা দাবিতে রংপুরে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ শুরু হয়েছে।

শনিবার (২৯ অক্টোবর) দুপুর ১২টার দিকে রংপুর কালেক্টরেট মাঠে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে এই সমাবেশ শুরু হয়। গণসমাবেশে সভাপতিত্ব করছেন বিএনপির আহ্বায়ক সামছুজ্জামান সামু।

মঞ্চে উপস্থিত আছেন বিএনপির সমাবেশ প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক ডা. এ জেড জাহিদ হোসেন, রংপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব দুলুসহ কেন্দ্রীয়, রংপুর বিভাগীয় ও জেলা এবং রংপুর নগরের নেতারা। বিএনপির স্থানীয় নেতারা পর্যায়ক্রমে বক্তব্য দিচ্ছেন।

bnp-2সমাবেশে অংশ নিতে দুই দিন আগে থেকেই রংপুরে আসেন বিএনপি নেতাকর্মীরা। শনিবার (২৯ অক্টোবর) সকালেও হাজারো নেতাকর্মী মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে আসতে থাকেন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কানায় কানায় পূর্ণ হয় সমাবেশস্থল।

অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে সতর্ক অবস্থান নিয়েছে আইন শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী। নগরীর বিভিন্ন মোড়ে তাদেরকে টহল দিতে দেখা গেছে।

জেলা মোটর মালিক সমিতির ডাকা ধর্মঘটের কারণে দুই দিন আগে থেকেই বিএনপির বিভাগীয় গণ সমাবেশে অংশ নিতে রংপুরে আসেন নেতা-কর্মীরা। আবাসিক হোটেলগুলোতে জায়গা না হওয়ায় কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠ সমাবেশস্থলে নির্ঘুম রাত কাটান তারা।

জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম বলেন, ধর্মঘট চললেও বিভাগের আট জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে ট্রাক, মিনি বাস, মোটরসাইকেল এবং ট্রেনযোগে রংপুরে এসে পৌঁছেছেন নেতাকর্মীরা। বিএনপির নেতারা জানান, কর্মীদের আগমনে আগের রাতেই সমাবেশস্থল পূর্ণ হয়েছে কানায় কানায়। তাদের জন্য নগরীর ২০টি স্কুল মাঠে অস্থায়ী প্যান্ডেল তৈরি করা হয়েছে বলেও জানান তারা।

কেন্দ্রীয় নেতারা বলছেন, বিএনপির সমাবেশেকে বাধাগ্রস্ত করতেই ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে সরকার। তাতে কোনো লাভ হবে না। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবেন তারা।

সর্বশেষ