ফিলিপাইনে ঝড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭২

ফিলিপাইনে ক্রান্তীয় ঝড় নালজি’র জেরে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭২ জনে ঠেকেছে। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের প্রদেশগুলোতে আকস্মিক বন্যা এবং ভূমিধসে এসব প্রাণহানি ঘটেছে বলে জানিয়েছে দুর্যোগ মোকাবিলা কর্তৃপক্ষ।

আলজাজিরা জানিয়েছে, ঝড়টির সর্বোচ্চ বাতাসের গতি ঘণ্টায় ৯৫ কিলোমিটার থেকে ১৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত। স্থানীয় সময় শনিবার সকালে পূর্বাঞ্চলের কাতান্দুয়ানেস প্রদেশে ভূমিধস হয়েছে।

ফিলিপাইনে ঝড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭২

 

দুর্যোগ মোকাবিলা সংস্থার মুখপাত্র বার্নার্দো রাফায়েলিটো আলেসান্দ্রো ডিজেডএমএম রেডিও স্টেশনকে বলেছেন, মাগুইন্দানাও প্রদেশ এই ঝড়ের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে; সেখানে এখন পর্যন্ত ৬৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

তিনি আরো বলেছেন, সুলতান কুদারাতে দুজনের প্রাণ গেছে। আরো দুজন সাউথ কোতাবাতো এলাকায় মারা গেছে এবং অন্যরা ফিলিপাইনের ভিসায়াস অঞ্চলে প্রাণ হারিয়েছে।

তিনি আরো বলেছেন, ৩৩ জন আহত হয়েছে এবং ১৪ জন নিখোঁজ রয়েছে।

ফিলিপাইনের ঊর্ধ্বতন একজন সরকারি কর্মকর্তা গতকাল শুক্রবার জানিয়েছিলেন, দক্ষিণাঞ্চলীয় মাগিন্দানাও প্রদেশে বন্যা ও ভূমিধসে অন্তত ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং ১৬ জন নিখোঁজ রয়েছে।

শুক্রবার বাংসামোরো স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের স্বরাষ্ট্র ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রী নাগিব সিনারিমবো ফোনে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানান, ‘এগিয়ে আসতে থাকা’ ক্রান্তীয় ঝড় নালজির প্রভাবে প্রবল বর্ষণ হচ্ছে, এতে মাগিন্দানাও প্রদেশের দুটি শহর বন্যা ও ভূমিধসের শিকার হয়েছে।

তিনি আরো জানিয়েছেন, প্রবল বৃষ্টির কারণে তিন লাখ বাসিন্দার শহর কোতাবাতো পানিবন্দি হয়ে পড়ে; এর আশপাশের গ্রামীণ জনপদগুলোতে হড়কা বানের সৃষ্টি হয়। এতে পাহাড়ি ঢলের সঙ্গে উপড়ে যাওয়া গাছ, পাথর ও কাদার স্রোত নেমে আসে।

সূত্র: আলজাজিরা।

সর্বশেষ