প্রোগ্রেসিভ ইঞ্জিনিয়ারিং ও সেটসুয়ো’র ব্যবসায়িক অংশীদারিত্বের ২০ বছর উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রোগ্রেসিভ ইঞ্জিনিয়ারিং কর্পোরেশন এবং সেটসুয়ো অ্যাস্টেক কর্পোরেশনের মধ্যে ব্যবসায়িক অংশীদারিত্বের ২০ বছর পূর্তি উদযাপন অনুষ্ঠান রাজধানীর হোটেলে ডোর ইন-এ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সেতসুয়ো অ্যাস্টেক কর্পোরেশনের প্রেসিডেন্ট এবং সিইও, মোটোকাজুইনাবা এবং মি সুবিশি ইলেকট্রিক জাপানের জেনারেল ম্যানেজার (ফ্যাক্টরি অটোমেশন সিস্টেম গ্রুপ) কুনিনোবুসোইচিরো।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সেতসুয়ো অ্যাস্টেক কর্পোরেশনের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ ইউসুকি ইমাগাওয়া এবং প্রোগ্রেসিভ ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব এম. এন আমিন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ফয়সাল এন্টারপ্রাইজ, জালাল আহমেদ স্পিনিং মিলস লিমিটেড, টি কে গ্রুপ, যমুনা গ্রুপ, বেঙ্গল এল এফ কে লি., নোমান গ্রুপ, ইউনুস গ্রুপসহ দেশের স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্তাব্যক্তিরা। সেটসুয়ো অ্যাস্টেক কর্পোরেশন ১৯৬৪ সালে প্রতিষ্ঠিত জাপানি ট্রেডিং কোম্পানি। সেটসুয়ো অ্যাস্টেক কর্পোরেশন ২০১৪ সালে মিতসুবিশি ইলেকট্রিকের শতভাগ সিস্টার কনসার্নে পরিণত হয়। বর্তমানে দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলে নিজেদের কার্যক্রম পরিচালনা করছে প্রতিষ্ঠানটি, তারই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি ঢাকায়ও ২০১৮ তে তাদের প্রতিনিধি অফিসের যাত্রা শুরুকরেছে।

প্রোগ্রেসিভ ইঞ্জিনিয়ারিং কর্পোরেশন বিশ্বখ্যাত প্রস্তুতকারক এবং সরবরাহকারী জাপানি প্রতিষ্ঠান মিতসুবিশি ইলেকট্রিকের স্থানীয় পরিবেশক। প্রোগ্রেসিভ ইঞ্জিনিয়ারিং কর্পোরেশনের ২০১৬ সালে বাংলাদেশে জাপানি কোম্পানি মিতসুবিশি অনুমোদিত ফ্যাক্টরি অটোমেশন সার্ভিস শপ চালুকরার মাধ্যমে স্থানীয় গ্রাহকদের মিতসুবিশি ইলেকট্রিক পণ্যের সার্ভিসিং সেবা নিশ্চিত করছে। প্রোগ্রেসিভ ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন এম. এন আমিন। তার সুদূর প্রসারি পরিকল্পনায় প্রোগ্রেসিভ ইঞ্জিনিয়ারিং কর্পোরেশন সময়ের সাথে সাথে বাংলাদেশের একটি প্রথম সারির অটোমেশন ও ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করতে সক্ষম হয়েছে। ১৯৮৮ সালে প্রতিষ্ঠিত কোম্পানিটি বর্তমানে দেশের ৯টি বিভাগেও নিজেদের সেবা প্রদান করছে। দেশের গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান যেমন: ওয়াসা, রাজউক, বেপজা, বিসিআইসি, বিএফডিসি সহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সাথে সুনামের সহিত কাজ করে আসছে। সেটসুয়ো অ্যাস্টেক কর্পোরেশনের মাধ্যমে মিতসুবিশি ইলেকট্রিকের বিভিন্ন পন্য যেমন বৈদ্যুতিক, ইলেকট্রনিক্স, অটোমেশন, শিল্প যন্ত্রপাতি এবং খুচরা যন্ত্রাংশ বাংলাদেশ পরিবেশন করে। সেটসুয়ো অ্যাস্টেক কর্পোরেশন, প্রোগ্রেসিভ ইঞ্জিনিয়ারিং কর্পোরেশনের সাথে ২০০১ সালে অংশীদারিত্ব ব্যবসার শুভ সূচনা করে। যার সফল যাত্রার ২০ বছর পূর্তি উদযাপন করছে প্রতিষ্ঠান দুটি।

সর্বশেষ