জবি আইএইচসিই আ‍্যালামনাইয়ের কমিটি গঠন

জবি প্রতিনিধি;

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) গৌরবময় বিভাগ ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি(আইএইচসি) কর্তৃক আয়োজিত ২য় পুর্ণমিলনী অনুষ্ঠানে পূর্ণাঙ্গ আ‍্যালামনাই কমিটি গঠনের আহ্বান করা হয়।

শুক্রবার (২১ অক্টোবর ) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় অডিটোরিয়ামে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সকল প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ‍্যাপক ড. ইমদাদুল হক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ‍্যাপক ড. কামাল উদ্দিন আহমদ। ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ‍্যাপক ড. আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে দিনব‍্যাপী নানা কর্মসূচিতে অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয়।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, কলা অনুষদের এই বিভাগটি বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা দিক থেকে অনেক গৌরব – উজ্জ্বলময় অবস্থানে আছে। সকলের সম্প্রতি, ঐকান্তিকতা, একতা, পারস্পরিক সহযোগিতায় এই বিভাগটি আরও এগিয়ে যাবে বলে আমি মনে করছি।
তিনি আরও বলেন, একটি বিভাগের আ‍্যালামনাই প্রাক্তন ছাত্রদের কাছে একটি বিশেষ দিন। জীবনের তাগিদে পিছনে ফেলে আসা সুন্দরতম মূহুর্তগুলোকে স্মৃতিচারণ করা জীবনের খুব কাছের বন্ধু-বান্ধবদের সাথে সত‍্যিই অনেক স্মরণীয় মূহুর্ত।

২০১৭ সালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে সর্বপ্রথম কোনো একক বিভাগ হিসেবে সর্বপ্রথম একটি সাংগঠনিক প্রক্রিয়ায় ইসলামের ইতিহাস বিভাগ আ‍্যালাইনাই পূর্ণমিলনীর আয়োজন করেছিল। অনুষ্ঠানে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে সকলকে প্রাণবন্ত করেছে বলে জানিয়েছেন আয়োজক কমিটি।
পরিশেষে অধ‍্যাপক ড. আতাউর রহমান একটি পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের উদ্দেশ্যে প্রাক্তন শিক্ষার্থী ড.সাফাওয়াত হোসেনকে আহ্বায়ক করে সাত সদস‍্য বিশিষ্ট একটি অস্থায়ী কমিটি গঠন করে দেন। আ‍্যালামনাইয়ের বিধান অনুযায়ী এক মাসের মধ‍্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণার জন‍্য আহ্বান করেন ।

উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানটির বাস্তবায়ন কমিটি ও উপকমিটির আহ্বায়ক ছিলেন অধ‍্যাপক ড. শামছুল কবির। এছাড়াও বিভাগের বর্তমান শিক্ষার্থীদের সার্বিক সহযোগিতায় অনুষ্ঠানটি সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার মাধ‍্যমে সমাপ্ত করা হয়।

সর্বশেষ