ধামইরহাটের যুবক পিন্টু মহিষ পালন করে স্বাবলম্বী

স্টাফ রিপোর্টারঃ
নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার ফার্শিপাড়া গ্রামের আঃ সালাম এর পুত্র মোসাদ্দেকুর রহমান পিন্টু ১০ বছর আগে ৩৬ টি গরু দিয়ে প্রথম ফার্ম শুরু করেন,
প্রথমে তার মূলধন ছিল ৩৬ লক্ষ টাকা।
দ্বিতীয় পর্যায়ে ৩৬ টি দুধের গাভী দিয়ে তিনি দুগ্ধ খামার শুরু করেন। কিন্তু ধামইরহাট উপজেলায় দুধের বাজার না থাকায় তাকে লোকসান গুনতে হয়। করোনা কালিন সময়ে তার প্রায় ১০ লক্ষ টাকা লোকসান হলেও থেমে থাকেননি পিন্টু। স্থানীয় প্রাণীসম্পদ দপ্তর থেকে বারবার আশ্বাস দেয়া হলেও তাকে কোন আর্থিক সুবিধা দেয়া হয়নি বলে তিনি অভিযোগ করেন।

চিকিৎসার খোঁজখবরও নেন না প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর থেকে। বর্তমানে মহিষ পালনে তিনি লাভের মুখ দেখতে শুরু করেন। বর্তমানে পিন্টুর ৩১ টি মহিষ ও ৪ টি উন্নত মানের গাভী রয়েছে মহিষ রয়েছে ৩১ টি যার বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় ৭৪ লক্ষ টাকা। যা তিনি শুরু করেছিলেন ৩৬ লক্ষ টাকা দিয়ে। সরকারি সহযোগিতা পেলে আরও বড় পরিসরে ফার্ম করার চিন্তাভাবনা রয়েছে পিন্টুর।

সর্বশেষ