বঙ্গবন্ধু দৃঢ়চেতা, নির্ভীক ও আপসহীন ব্যক্তিত্বের অধিকারী ছিলেন : ড.কলিমউল্লাহ

বঙ্গবন্ধু দৃঢ়চেতা, নির্ভীক ও আপসহীন ব্যক্তিত্বের অধিকারী ছিলেন : ড.কলিমউল্লাহ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০২ তম জন্মোৎসব উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ সেমিনারের ৪২৯তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, ইউএন ডিজএ্যাবিলিটি রাইটস চ্যাম্পিয়ন ও অনারারি প্রফেসর আবদুস সাত্তার দুলাল এবং গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, রংপুর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আর্জিনা খানম ও শিল্প উদ্যোক্তা তাসলিমা ফেরদৌস।
সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, সিটিজেন বাংলা ডটকম পত্রিকার সম্পাদক মোশফিক কাজল, ইন্টারন্যাশনাল রবীন্দ্র রিসার্চ ইনস্টিটিউটের পরিচালক ও সহযোগী অধ্যাপক ফারহানা আকতার, ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ফ্যাকাল্টি কাজী ফারজানা ইয়াসমিন, নীলফামারীর জলঢাকা থেকে পিএইচডি গবেষক ফাতিমা তুজ জোহরা এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন গোপালগঞ্জস্থ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়’র এর ইনস্টিটিউট অফ লিবারেশন ওয়ার এন্ড বাংলাদেশ স্টাডিজের অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।
সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন, ছাত্রলীগের সাবেক নেত্রী এবং বিশিষ্ট নারী উদ্যোক্তা আমাতুন নূর শিল্পী।

সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন,বঙ্গবন্ধু দৃঢ়চেতা, নির্ভীক ও আপসহীন ব্যক্তিত্বের অধিকারী ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আবদুস সাত্তার দুলাল বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন নীতিতে অটল, আপসহীন ও দৃঢ় মনোবলে বলীয়ান।বঙ্গবন্ধু ছিলেন ধার্মিক, মানবতাবাদী, উদার ও সংগ্রামী। তিনি মানুষকে মানুষ হিসেবে দেখেছেন। তিনি রাজনীতিতে মুসলমান, হিন্দু, খ্রিষ্টানসহ সব ধর্মের মানুষকে সমানভাবে দেখেছিলেন। তিনি ছিলেন অসম্প্রদায়িক মানবতাবাদী নেতা।
যুদ্ধবিধ্বস্ত জাপান কিভাবে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছিল তা বঙ্গবন্ধুর মনে দাগ কেটেছিল। তাই তিনি জাপানও ভ্রমণ করেছিলেন এবং জাপানের প্রযুক্তি ও কৌশল রপ্ত করার দিকে মনোযোগী হয়েছিলেন। বাংলাদেশকেও তিনি উন্নত রাষ্ট্র গঠনের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন।
আর্জিনা খানম বলেন,জাতির পিতার আদর্শ ও দেখানো পথ অনুসরণ করেই বৈশ্বিক শান্তি ও সমৃদ্ধি প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এগিয়ে চলছে।

আমাতুন নূর বলেন,জাতিরাষ্ট্র গঠনে বঙ্গবন্ধুর নিজস্ব চিন্তা-ভাবনার বিকাশ নতুন প্রজন্মের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছে জানিপপ’র এই সান্ধ্যকালীন সেমিনার এর মাধ্যমে।
কাজী ফারজানা ইয়াসমিন বলেন,ঐক্যবদ্ধ ও সুপরিকল্পিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে উন্নততর ভবিষ্যৎ গঠনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চিন্তাধারা বর্তমান বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে প্রাসঙ্গিক। তাই দেশপ্রেম এবং জাতির পিতার আদর্শে নতুন প্রজন্মকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য প্রদান করেন, সিটিজেন বাংলা ডটকম পত্রিকার সম্পাদক মোশফিক কাজল ও সহযোগী অধ্যাপক ফারহানা আকতার।

সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন আমেরিকার মিলেনিয়াম টিভির কান্ট্রি ডিরেক্টর ও রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী।
সেমিনারে অন্যন্যের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত প্রকৌশলী শাফিউল বাশার, রাজশাহী থেকে ডা. মাহবুবুল হক ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ডা.বায়েজিদা ফারজানা।

সর্বশেষ