বঙ্গবন্ধু ছিলেন ত্যাগ ও তপস্যার মহানায়ক: ড.কলিমউল্লাহ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০২ তম জন্মোৎসব উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ সেমিনারের ৪২৫তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, ভারতের কলকাতা থেকে বিশিষ্ট টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব পিনাকী ভট্টাচার্য এবং গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক ড.জেবউননেসা ও রংপুর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আর্জিনা খানম।
সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, ছাত্রলীগের সাবেক নেত্রী, বিশিষ্ট নারী উদ্যোক্তা আমাতুন নূর, কুষ্টিয়ার খোকসা থেকে সাংবাদিক হুমায়ুন কবীর ও ইন্টারন্যাশনাল রবীন্দ্র রিসার্চ ইনস্টিটিউটের পরিচালক ও সহযোগী অধ্যাপক ফারহানা আকতার ।
মূখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য উপস্থাপন করেন গোপালগঞ্জস্হ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু ইনস্টিটিউট অব লিবারেশন ওয়ার এন্ড বাংলাদেশ স্টাডিজ এর অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।

সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ তাঁর বক্তব্যের শুরুতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন ত্যাগ
ও তপস্যার মহানায়ক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পিনাকী ভট্টাচার্য বলেন, আমরা বাঙালি অনেক গ্লানি কাটিয়ে একটি স্বাধীন জাতি হিসেবে ইতিহাসে স্থান
পেয়েছি। বঙ্গবন্ধু না হলে বাংলাদেশের এই স্বাধীনতা সম্ভব হতো না।
অধ্যাপক ড.জেবউননেসা বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন আমাদের দ্রষ্টা, তিনিই ছিলেন আমাদের আদর্শ, তিনিই ছিলেন আমাদের
অনুপ্রেরণা।

আর্জিনা খানম বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের হাজার বছরের ইতিহাসের একক মহান পুরুষ।

আমাতুন নূর বলেন,যে সরকারই দেশ শাসন করুন না কেন, মুজিব যেন থাকেন আমাদের আদর্শে,
আমাদের অনুপ্রেরণা ও আমাদের চেতনার প্রতীক মহাপুরুষ হয়ে। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য উত্তরসূরী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ। আগামী নির্বাচনেও তাঁর এই ঋণ শোধ করতে হবে ভোট বিপ্লবের মাধ্যমে, আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায়ন করে।
প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, ১৯৭২ সালের ১২ জানুয়ারি যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশের পুনর্গঠনের লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। মাত্র সাড়ে তিন বছরের শাসনামলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নতুন বাংলাদেশকে শক্ত ভিত্তির ওপর স্থাপন করেন।
ফারহানা আকতার, “বঙ্গবন্ধু ও ভাষা আন্দোলন শীর্ষক” আলোচনা উপস্থাপন করেন।

সাংবাদিক হুমায়ুন কবির বলেন, বঙ্গবন্ধু ন্যায়পরায়ন ব্যক্তিত্ব ছিলেন।

সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন আমেরিকার মিলেনিয়াম টিভির কান্ট্রি ডিরেক্টর ও রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী।
সেমিনারে অন্যন্যের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত প্রকৌশলী শাফিউল বাশার, রাজশাহী থেকে ডা. মাহবুবুল হক ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ডা.বায়েজিদা ফারজানা।

সর্বশেষ