Wednesday, September 28, 2022
Homeজাতীয়বঙ্গবন্ধু ছিলেন কৃষক ও শ্রমিক এবং অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর মুক্তির কান্ডারী: ড.কলিমউল্লাহ

বঙ্গবন্ধু ছিলেন কৃষক ও শ্রমিক এবং অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর মুক্তির কান্ডারী: ড.কলিমউল্লাহ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ সেমিনারের ৪১১তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, ইউএন ডিজএ্যাবিলিটি রাইটস চ্যাম্পিয়ন ও অনারারি প্রফেসর আব্দুস সাত্তার দুলাল এবং গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন,রংপুর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আর্জিনা খানম ও বিশিষ্ট নারী উদ্যোক্তা আমাতুন নূর ।
সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, সিটিজেন ডটকম পত্রিকার সম্পাদক মোশফিক কাজল,কুষ্টিয়ার খোকসা থেকে হুমায়ুন কবির ও পিএইচডি গবেষক শামসুন্নাহার লাভলী এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।

সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন কৃষক ও শ্রমিক এবং অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর মুক্তির কান্ডারী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আব্দুস সাত্তার দুলাল বলেন, বঙ্গবন্ধু নিপীড়িত ও দরিদ্র মানুষের জন্য চিন্তায় মগ্ন থাকতেন ।তাদের মৌলিক ও সমঅধিকার নিশ্চিত করণের লক্ষ্যে সংগ্রাম করেছেন আমৃত্যু। শুধু বাঙালি নয়,বিশ্বে শোষিতের গণতন্ত্র দর্শন প্রতিষ্ঠার মহাপুরুষ ছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জীবন দিয়ে যৌবন দিয়ে বাঙালির স্বপ্ন পূরণে আমৃত্যু সংগ্রাম করেছেন। আর সেই পিতাকে জীবন দিতে হলো ‘আশ্রিত কুকুরের’ বুলেটে।
আর্জিনা খানম বলেন, এ অঞ্চলের মানুষের ইতিহাস বঞ্চনা আর নিপীড়নের ইতিহাস। বাঙালি বঞ্চনা আর নিপীড়নের শিকার হয়ে স্বকীয়তার স্বপ্ন দেখেছিলো। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালির সেই স্বপ্ন পূরণ করেছেন।

আমাতুন নূর বলেন, বঙ্গবন্ধু সোনার দেশ গড়ার জন্য সোনার মানুষ তৈরি করার আহ্বান জানিয়েছিলেন। আমাদেরকেও সোনার মানুষ হতে হবে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়নের জন্য।

হুমায়ুন কবির বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক প্রজ্ঞা এবং দূরদর্শিতা থেকে রাজনীতিবিদদের শিক্ষা নিতে হবে।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,সিটিজেন বাংলা ডটকম পত্রিকার সম্পাদক মোশফিক কাজল ও পিএইচডি গবেষক শামসুন্নাহার লাভলী।
সভায় বক্তারা বলেন, মহান স্বাধীনতা লাভের পরেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নব প্রণীত সংবিধানের বেশ কয়েকটি অনুচ্ছেদে শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের অধিকারের বিষয় সুদৃঢ়করণ করেন। সংবিধানের ১৪ অনুচ্ছেদে কৃষক ও শ্রমিকের সেই মুক্তির কথা বলা হয়েছে।

সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী। সেমিনারে অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন, রাজশাহী থেকে ডা. এবিএম মাহাবুবুল হক, লিও জান্নাতুল ফেরদৌস তিথি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে বায়েজিদা ফারজানা।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular