Wednesday, September 28, 2022
Homeজাতীয়বঙ্গবন্ধুর প্রতি দেশবাসীর ছিল শতভাগ আস্থা: ড.কলিমউল্লাহ

বঙ্গবন্ধুর প্রতি দেশবাসীর ছিল শতভাগ আস্থা: ড.কলিমউল্লাহ

. জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ সেমিনারের ৪০৭তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন,রংপুর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আর্জিনা খানম এবং গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, বিশিষ্ট নারী উদ্যোক্তা আমাতুন নূর।
সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, ইন্টারন্যাশনাল রবীন্দ্র রিসার্চ ইনস্টিটিউট এর পরিচালক ও সহযোগী অধ্যাপক ফারহানা আকতার ও কুষ্টিয়ার খোকসা থেকে সিনিয়র সাংবাদিক হুমায়ুন কবির এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।

সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ বলেন, মানুষের প্রতি ছিলো জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অগাধ ভালোবাসা। আর দেশের মানুষের ছিল বঙ্গবন্ধুর প্রতি শতভাগ আস্থা। যার ফলে তাঁর অনুপস্থিতি সত্ত্বেও মানুষ মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল।

আর্জিনা খানম বলেন,জনগণের আস্থা ও ভালোবাসা অর্জন করেই বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের রূপকল্প-২০২১ ও রূপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়ন করবেন। বর্তমান আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকারের প্রতি শান্তিপ্রিয় জনগণের অগাধ আস্থার প্রতিও সুবিচার করবেন সবার আশা ভরসার স্থল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
আমাতুন নূর বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এ দেশের মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তি চেয়েছিলেন। সেই লক্ষ্যে তিনি যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন। আমাদেরকে অর্থনৈতিক মুক্তি এনে বঙ্গবন্ধুর রক্তের ঋণ শোধ করতে হবে। তাঁরই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সেই লক্ষ্যেই নিরলস কাজ করে চলেছেন।
ফারহানা আক্তার,”নতুন প্রজন্মের চোখে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ”১৮তম পর্ব উপস্থাপন করেন।এ পর্বে- তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের উল্লেখযোগ্য ঘটনাবলী তুলে ধরেন।
প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, কেবল রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক মুক্তিই নয়, বাংলাদেশের ভাষা, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির মুক্তিসংগ্রামেও নেতা হিসাবে বঙ্গবন্ধু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। বঙ্গবন্ধুর ভাষণে প্রতিটা শব্দের চয়ন বিশ্লেষণ করলে অবাক হতে হয়। আইনের ছাত্রের পক্ষে এত উন্নত বাংলা ভাষার গঠন শৈলী ও প্রয়োগ সত্যিই বিস্ময়কর।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য প্রদান করেন,কুষ্টিয়ার খোকসা থেকে সিনিয়র সাংবাদিক হুমায়ুন কবির।

সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী। সেমিনারে অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ডা. বায়েজিদা ফারজানা, রাজশাহী থেকে ডা. এবিএম মাহাবুবুল হক ও কিশোরগঞ্জ থেকে মাসুদ করিম।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular