বঙ্গবন্ধু আমাদের প্রথম এবং শেষ ঠিকানা: ড.কলিমউল্লাহ

মুজিব শতবর্ষ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র ১০২তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত বর্ষকালব্যপী জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ সেমিনারের ৩৬০তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, ইউএন ডিজএ্যাবিলিটিস রাইটস চ্যাম্পিয়ন ও অনারারি প্রফেসর আবদুস সাত্তার দুলাল এবং গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, রংপুর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আর্জিনা খানম।
সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন,পিএইচডি গবেষক মোঃ মাজহারুল আনোয়ার ওফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের ফ্যাকাল্টি কাজী ফারজানা ইয়াসমিন
এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন গোপালগঞ্জস্থ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু ইনস্টিটিউট অব লিবারেশন ওয়ার এন্ড বাংলাদেশ স্টাডিজ এর অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।

সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ বলেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের প্রথম এবং শেষ ঠিকানা।
পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশের মানচিত্র যতদিন থাকবে ততদিন বঙ্গবন্ধু থাকবেন। বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশ এক ও অবিচ্ছেদ্য অংশ। তিনি আরো বলেন,বঙ্গবন্ধুকে আমরা পরবর্তী প্রজন্মের কাছেও চির জাগরুক করে রাখতে চাই। তাই বঙ্গবন্ধু স্মরণে এই সান্ধ্যকালীন চর্চা শিখা চিরন্তনের মতো অব্যাহত থাকবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আব্দুস সাত্তার দুলাল বলেন, বঙ্গবন্ধু সবার ঊর্ধ্বে দেশের স্বার্থকে প্রাধান্য দিতেন। আমাদেরকেও সর্বাগ্রে দেশের স্বার্থকে প্রাধান্য দিতে হবে। বর্তমান পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে দেশের চারিদিকে প্রাচীর নির্মাণ করা জরুরী হয়ে পড়েছে। তিনি আরো বলেন, প্রতিবেশী দেশ সীমান্তে কাঁটাতার দিয়ে বেড়া নির্মাণ করেছে। যা প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার জন্য যথেষ্ট নিরাপদ নয় বলেও তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন।
তিনি আরো বলেন, দেশে উজান থেকে নেমে আসা পানির ঢল সরাসরি সমুদ্রে সরানোর পাশাপাশি খরা মৌসুমে পানি সংরক্ষণের জন্য দেয়াল ঘেঁষে প্রশস্ত খাল খননের প্রয়োজন। এই কাজটি সম্পন্ন করা গেলে মাছ ,হাঁস পালন সহ উৎপাদন মুখী নানা কাজে এই খালকে ব্যবহার করা যাবে। সীমান্তে চোরাচালান রোধ এবং সন্ত্রাসী কার্যক্রম থেকে দেশকে রক্ষার পাশাপাশি বিপুল জনগোষ্ঠীকে উৎপাদনমুখী কাজেও নিযুক্ত করা যাবে বলে তিনি মনে করেন।
বক্তব্য শেষে তিনি জানিপপের ২৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহকে অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা জানান।

আর্জিনা খানম, বঙ্গবন্ধু স্মরণে আয়োজিত এ সেমিনারকে শিখা চিরন্তনের মতো প্রতিদিন অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেয়ায় জানিপপ’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানকে ধন্যবাদ এবং শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।
প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, গুণীজনদের কদর না করলে দেশকে এগিয়ে নেয়া যাবে না।
কাজী ফারজানা ইয়াসমিন বলেন, দেশ অনেক দূর এগিয়েছে সন্দেহ নেই। এই উন্নয়নকে টেকসই করার জন্য প্রয়োজন নিঃস্বার্থ দেশপ্রেম।
সেমিনারে অনুষ্ঠানের সঞ্চালক দিপু সিদ্দিকী জানিপপের ২৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে জানিপপের কর্মকান্ড ও প্রতিষ্ঠাকাল সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত ইতিহাস স্লাইডে উপস্থাপন করেন।
সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী। সেমিনারে অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন, সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তা ইএ রুমা।

সর্বশেষ