Saturday, October 1, 2022
Homeঅর্থনীতিGreen Development, Building Energy-efficient ICT Infrastructure

Green Development, Building Energy-efficient ICT Infrastructure

Green Development, Building Energy-efficient ICT Infrastructure

 

 

Dhaka July 21 2022 :

 

Huawei’s Carrier Business Group Chief Marketing Officer, Philip Song has launched a new suite of green development solution in an ongoing online program named Win-Win·Huawei Innovation Week arranged by Huawei.

 

This solution is aimed at helping operators systematically improve network energy efficiency as ICT infrastructure continues to evolve from 5G and F5G to 5.5G and F5.5G, green networks, evaluated against the network carbon intensity (NCIe) index and it will become a critical part of future target networks. And it will help operators systematically build green networks that simultaneously address traffic growth and carbon emission reduction.

 

According to Song, technological innovation is required at three levels. Firstly, to move sites fully outdoors, and increase equipment energy efficiency and the efficiency of using renewable energy; secondly, to maximize energy efficiency and make networks all-optical, simplified, and intelligent; and thirdly to achieve green O&M, new O&M and energy-saving policies more easily.

 

Song launched Huawei’s green development solution with innovations at these three levels, as well as the new NCIe indicator system which supports this three-layer solution of green site, green network, and green operation.

 

Closing out his speech, Song also announced the opening of the Evergreen Land engagement room, where Huawei will meet with global operators to discuss in-depth about green development and ways to build the most energy-efficient ICT infrastructure. He reiterated, “Huawei is committed to working with operators to improve the energy efficiency of ICT infrastructure and create value using green ICT technologies.”

 

At the site layer, the solution focuses on innovation in three areas like in Fully-outdoor deployment since its leading blade power module supports 2G, 3G, 4G and 5G within a single site. And that solution features 97% site energy efficiency (SEE).

Besides, High degrees of integration where Ultra-wideband RF modules and multi-band antennas are integrated within these simplified sites. It also ensures, efficient use of renewable energy.

 

On the other hand, at the network layer, the solution also features innovations in three areas like, (i) all-optical connectivity by upgrading the entire network from electrical switching to optical switching; (ii) Simplification by  enabling the solution to integrate four units of equipment into one; and  (iii) Intelligence with dynamic hibernation of routers and automatically adjusts the forwarding frequency of network processors based on changes in the traffic volume.

 

Also at the operation layer, the solution focuses on user operations, energy saving policies, and energy efficiency indicators.

 

গ্রিন ডেভেলপমেন্ট ও জ্বালানি সাশ্রয়ী আইসিটি অবকাঠামো তৈরিতে হুয়াওয়ের নতুন সল্যুশন

 

ঢাকা ২১, জুলাই ২০২২ :

 

হুয়াওয়ে আয়োজিত ‘উইন-উইন হুয়াওয়ে ইনোভেশন উইক’ শীর্ষক চলমান এক অনলাইন অনুষ্ঠানে গ্রিন ডেভেলপমেন্ট সল্যুশনের নতুন একটি স্যুট উন্মোচন করেছে হুয়াওয়ের ক্যারিয়ার বিজনেস গ্রুপের চিফ মার্কেটিং অফিসার ফিলিপ সং।

আইসিটি অবকাঠামো ফাইভজি ও এফফাইভজি থেকে ৫.৫জি ও এফ৫.৫জি, গ্রিন নেটওয়ার্কের দিকে যাচ্ছে। নেটওয়ার্ক কার্বন ইনটেনসিটি (এনসিআইই) ইনডেক্সের বিপরীতে নেটওয়ার্ক পর্যালোচনা করা হচ্ছে এবং ভবিষ্যতের টার্গেট নেটওয়ার্কের গুরুত্বপূর্ণ অংশ হবে এই ইনডেক্স। এমতাবস্থায়, এই সল্যুশনের লক্ষ্য নেটওয়ার্কের জ্বালানির কার্যকারিতা উন্নয়নে অপারেটরদের পদ্ধতিগতভাবে সহায়তা করা, যা অপারেটরের গ্রিন নেটওয়ার্ক গড়ে তুলতে এবং একইসাথে ট্র্যাফিকের প্রবৃদ্ধির বিষয় শনাক্ত করতে ও কার্বন নিঃসরণ হ্রাসে ভূমিকা রাখবে।

সং -এর মতে, তিনটি পর্যায়ে প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন প্রয়োজন। প্রথমত, সাইটগুলোকে আউটডোরে নিয়ে যাওয়া, ইক্যুইপমেন্ট এনার্জি এফিশিয়েন্সি ও পুনঃনবায়নযোগ্য জ্বালানির ব্যবহারের কার্যকারিতা বাড়ানো। দ্বিতীয়ত, সর্বোচ্চ জ্বালানি কার্যকারিতা নিশ্চিত করা এবং নেটওয়ার্ককে অল-অপটিক্যাল, সিমপ্লিফায়েড ও ইন্টেলিজেন্ট করা। এবং তৃতীয়ত, সহজে গ্রিন ওঅ্যান্ডএম ও নিউ ওঅ্যান্ডএম অর্জন করা এবং জ্বালানি-সাশ্রয়ী নীতিমালা তৈরি।

সং এই তিন পর্যায়ে হুয়াওয়ের উদ্ভাবনী গ্রিন ডেভেলপমেন্ট সল্যুশন; পাশাপাশি, এনসিআইই ইন্ডিকেটর সিস্টেম উন্মোচন করেন, যা গ্রিন সাইট, গ্রিন নেটওয়ার্ক ও গ্রিন অপারেশন, তিনটি পর্যায়কে সমর্থন করবে।

বক্তব্যের শেষে সং এভারগ্রিন ল্যান্ড এনগেজমেন্ট রুম চালুর ঘোষণা দেয়। এই রুমে হুয়াওয়ে গ্রিন ডেভেলপমেন্ট এবং কীভাবে জ্বালানি-সাশ্রয়ী আইসিটি অবকাঠামো নির্মাণ করা যায় তা নিয়ে বৈশ্বিক অপারেটরদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করবে। তিনি বলেন, “আইসিটি অবকাঠামোর জ্বালানি সাশ্রয়ী সক্ষমতা উন্নয়নে গ্রিন আইসিটি প্রযুক্তি ব্যবহার করে নতুন ভ্যালু তৈরিতে অপারেটরদের সাথে কাজ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হুয়াওয়ে।”

সাইট লেয়ারে এসব সল্যুশন তিনটি ক্ষেত্রে উদ্ভাবনে জোর দিবে। যার মধ্যে রয়েছে: সম্পূর্ণভাবে আউটডোর ডেপ্লয়মেন্ট; এই সল্যুশনের মাধ্যমে ব্লেড পাওয়ার মডিউল নিয়ে কাজ করা হচ্ছে, একটি সাইটের মধ্যেই যা টুজি, থ্রিজি, ফোরজি ও ফাইভজি সমর্থন করে। এবং এ সল্যুশনে ৯৭ শতাংশ সাইট এনার্জি এফিশিয়েন্সির (এসইই) সক্ষমতা রয়েছে।

এছাড়াও, সিমপ্লিফায়েড এসব সল্যুশনে আল্ট্রা-ওয়াইড ব্যান্ড আরএফ মডিউল ও মাল্টি-ব্যান্ড অ্যান্টেনা একীভূত থাকে। পাশাপাশি, এটি পুনঃনবায়নযোগ্য জ্বালানির সর্বোচ্চ কার্যকারিতা নিশ্চিত করবে। অন্যদিকে, নেটওয়ার্ক লেয়ারে এ সল্যুশন তিনটি ক্ষেত্রে উদ্ভাবন নিয়ে এসেছে; যথা – ১। অল-অপটিক্যাল কানেক্টিভিটির মাধ্যমে সম্পূর্ণ নেটওয়ার্ক ইলেক্ট্রিক্যাল সুইচিং থেকে অপটিক্যাল সুইচিং -এ আপগ্রেড করে ২। সল্যুশনের মাধ্যমে চার ইউনিটের ইক্যুইপমেন্টকে একটি ইউনিটে পরিণত করে; এবং ৩। রাউটারের ডায়নামিক হাইবারনেশনকে ইন্টেলিজেন্ট করে তোলে এবং ট্র্যাফিক ভলিউমের পরিবর্তনের ওপর ভিত্তি করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নেটওয়ার্ক প্রসেসরের ফ্রিকোয়েন্সি সমন্বয় করে।

অপারেশন পর্যায়ে, সল্যুশনটি ব্যবহারকারীর অপারেশন, এনার্জি সেভিং পলিসি ও এনার্জি এফিশিয়েন্সি ইন্ডিকেটরে আলোকপাত করে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular