Wednesday, September 28, 2022
Homeঅর্থনীতিইউসিবিএল ব্যাংকের বিরুদ্ধে এমএনএইচ বুলুর ৪০কোটি টাকার মানহানির মামলা

ইউসিবিএল ব্যাংকের বিরুদ্ধে এমএনএইচ বুলুর ৪০কোটি টাকার মানহানির মামলা

  • হাসানুজ্জামান,সুমন-বিশেষ প্রতিনিধি:
    ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড এর বিরুদ্ধে ৪০কোটি টাকা মানহানির মামলা করেছেন বি এন এস গ্রুপের চেয়ারম্যান এমএনএইচ বুলু মিথ্যা মামলায় সামাজিক ব্যাংকিং,কর্পোরেট ও ব্যবসায়ীক সুনাম কুনন্ন করার অভিযোগে তিনি এ মামলা দায়ের করেছেন। গত মঙ্গলবার ৫ই জুলাই ঢাকা মহানগর প্রথম যুগ্ম জেলা জজ আদালতে তিনি এ মামলা দায়ের করেন এবং মামলাটি আমলে নিয়েছেন।
    পরে সুপ্রিম কোর্টের ল,রিপোটার্স কার্যালয় এক সংবাদ সম্মেলনে এমএনএইচ বুলু বলেন,ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড এর বিরুদ্ধে ৪০কোটি টাকা মানহানি মামলা দায়ের করেছে। তিনি আরো বলেন,ইউনাইটেড কমার্শিয়াল কমার্শিয়াল ব্যাংক বনানী শাখা কতিপয় অসাধু ব্যক্তির,কু-পরামর্শক্রমে ২০১৫ সালে ৪মার্চ মিথ্যা বর্ণনা দিয়ে আমার বিরুদ্ধে বনানী থানায় মামলা দায়ের করেন ।ওই মামলায় তারা আমাকে আমির ফুড প্রডাক্ট প্রতিষ্ঠানের একাউন্টস এর নমিনি হিসেবে উল্লেখ করেন। পরে আমি বিষয়টি জানতে পারলে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের মাধ্যমে জোরালো অভিযোগ করি ঐ একাউন্টে নমিনিতে আমি কোন স্বাক্ষর করিনি এবং ওই অ্যাকাউন্ট খোলা সহ কোন কার্যক্রমে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে আমার সংগে সম্পর্ক নেই। যার কারণে পরবর্তী সময় আমি চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট থেকে এই মামলা হতে অব্যাহতি পাই।
    পরবর্তী সময়ে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের দায়ের করা ওই মিথ্যা মামলা সূত্র ধরে সিআইডি আমার বিরুদ্ধে পুনরায় বনানী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় আমির ফুড প্রডাক্ট প্রতিষ্ঠানের একাউন্টস এর নমিনি হিসাব থেকে ১২লক্ষ টাকা আমার হিসাবে জমা দেখানো হয়।কিন্তু ঐদিন আমির ফুড প্রডাক্ট হিসাব থেকে আমার একাউন্টে কোন টাকা আসেনি। ওই মামলায় আমি অন্যায় ভাবে গ্রেফতার হয়ে দীর্ঘ চার মাস বিনা বিচারে জেলহাজতে ছিলাম। এই সময় আমি শারীরিক ও মানসিকভাবে বিপর্যস্ত এ পড়ি। যার পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরের ৬জুন আমি হার্ড অ্যাটাকে আক্রান্ত হয় এবং এখন পর্যন্ত আমি সার্বিকভাবে নানান সমস্যায় ভুগছি ও পায়ের সমস্যার কারণে ঠিকমতন হাঁটাচলা করতে পারিনা। ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের মিথ্যা মামলার কারণে চার মাস বিনা বিচারে জেলহাজতে থাকা কালীন আমার ফ্যাক্টরি জন্য কাঁচামাল আমদানি করা সম্ভব হয় না। আমার সমস্ত ফ্যাক্টরি একটি একটি বন্ধ হয়ে যায়। শত শত শ্রমিক বেকার হয়ে পড়ে। এছাড়াও আমার সামাজিক ব্যাংকিং কর্পোরেট ও ব্যবসায়িক সুনাম ব্যাপকভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে যার কারণে আমি ব্যাংকের বিরুদ্ধে ৪০কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করে মামলা করেছি।
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular