Saturday, October 1, 2022
Homeজাতীয়২১ জুন এক নজরে বাংলাদেশ

২১ জুন এক নজরে বাংলাদেশ

২১ জুন এক নজরে বাংলাদেশ

 

 

৭৩ বছর পেরিয়ে গেলেও আওয়ামী লীগ টগবগে যুবক : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ৯ আষাঢ় (২৩ জুন) :    

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, বঙ্গবন্ধু আমাদেরকে স্বাধীন সার্বভৌম একটি দেশ দিয়েছেন আর তাঁর কন‍্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে উন্নয়ন ও মর্যাদার জায়গায় নিয়ে গেছেন। শেখ হাসিনার হাত ধরেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। শেখ হাসিনা তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোর জন‍্য উন্নয়নের আইকনে পরিণত হয়েছেন। শেখ হাসিনার যোগ‍্য নেতৃত্বে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মিত হয়েছে। তিনি পদ্মা সেতু করতে চেয়েছেন, ষড়যন্ত্রকারীরা টেনে ধরতে চেয়েছেন। ষড়যন্ত্রকারীরা পারেননি। শেখ হাসিনা পেরেছেন। তাঁর নেতৃত্বে উন্নয়নের বিষয় নিয়ে তৃতীয় বিশ্বের লোকজন গবেষণা করবে-এটা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের জন‍্য অহংকার।

প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় সেগুন বাগিচাস্থ শিল্পকলা একাডেমির সংগীত ও নৃত্যকলা মিলনায়তনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষে বঙ্গবন্ধু জন্মশতবর্ষ আন্তর্জাতিক পর্ষদ ও বঙ্গবন্ধু লেখক পরিষদ আয়োজিত “শেখ হাসিনা পদ্মা সেতুর জয়-বিশ্বের বিস্ময়” শীর্ষক আলোচনা সভা, কবিতা পাঠ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

কবি আসলাম সানীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন‍্যান্যের মধ‍্যে বক্তব‍্য রাখেন অধ‍্যাপক ড. আবদুল মান্নান চৌধুরী, শিশু সাহিত‍্যকি সুজন বড়ুয়া, ড.শাহাদাত হোসেন নিপু, কবি বাপ্পী রহমান, কবি আসাদুজ্জামান, মিডিয়া ব‍্যক্তিত্ব সুজন হালদার।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত‍্যার পর দেশ অন্ধকার যুগে চলে গিয়েছিল। বাংলাদেশ বন্ধুহীন হয়ে পড়েছিল। সে জায়গা থেকে বাংলাদেশের উত্তরণ ঘটেছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের ক্ষেত্রে কোথায় গেছে-তাবত দুনিয়া সেটি দেখছে। একমাত্র পদ্মা সেতু নিয়ে ৮০ লাখ কন্টেন্ট তৈরি হয়েছে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ মানে বঙ্গবন্ধু আর বঙ্গবন্ধু মানে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের ৭৩ বছরের পথচলা বঙ্গবন্ধুর হাত ধরেই। ধারাবাহিকভাবে কল‍্যাণকর কাজ করে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ। ৭৩ বছর পেরিয়ে গেলেও আওয়ামী লীগ টগবগে যুবক। প্রতিটি সম্মেলনে আওয়ামী লীগ নিজেকে সংস্কার করেছে। সমাজ, দেশ ও জাতির কথা চিন্তা করে আওয়ামী লীগ চলতে পেরেছে। সামনে এগিয়ে চলার জন‍্য নেতৃত্ব তৈরি করেছে।

 

২১টি হজ এজেন্সিকে হজ সিস্টেমে তথ্য প্রদানের তাগিদ ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের

 

ঢাকা, ৯ আষাঢ় (২৩ জুন) :

 

          হিজরি ১৪৩৩/২০২২ সনের হজ কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারী অপারেটিং হজ এজেন্সিসমূহের মধ্যে ২১টি হজ এজেন্সি সৌদি আরবে বাড়ি ও হোটেলের তথ্য এবং মক্তব সংক্রান্ত হজ সিস্টেমে প্রদান করেনি। অথচ তাদের অধীনে নিবন্ধিক হজযাত্রী রয়েছে।

 

সুষ্ঠু হজ ব্যবস্থাপনার স্বার্থে World Link Airways Limited, Gaoucia Travels & Tours, Bandhu Air Internatioal, Anzum Overseas, Bismillah Tour & Travels, Worldlink Tours & Travels, Arshinagor Travels & Tours, Bangladesh Air Travels, Gulf Travels, Iqra Travels & Tours, Lima Travel Agency, Mabrur Air International, Mabruran Hajj Agency, N.Al-Amin Hajj Kafela Tours & Travels, Rahamatullil Alamin tours & Travesl, Sabilul Jannat Air Travels Ltd., Sadman Travels & Tours, Upright Tours And Travels Ltd., Dream Sky International, At-Tablig Hajj Services and Raisa tours & travels এই ২১টি হজ এজেন্সিকে জরুরিভিত্তিতে বাড়ি ও হোটেলের তথ্য এবং মক্তব সংক্রান্ত হজ সিস্টেমে প্রদান করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন ধর্ম মন্ত্রণালয়।

 

উপরে উল্লিখিত হজ এজেন্সিগুলো যথাসময়ে তাদের নিবন্ধিত হজযাত্রীর তথ্য হজ সিস্টেমে দিতে ব্যর্থ হলে তাদের বিরুদ্ধে হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনা আইন ২০২১ এর আওতায় প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত দুর্গম সীমান্তবর্তী অঞ্চলে বানভাসি মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দিল বিজিবি

 

ঢাকা, ৯ আষাঢ় (২৩ জুন) :

          আজ বিজিবি মহাপরিচালকের নির্দেশনায় বিজিবি সদর দপ্তর থেকে হেলিকপ্টারযোগে ত্রাণ নিয়ে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার দুর্গম সীমান্তবর্তী এলাকায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় বানভাসি মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দেয়ার জন্য বিজিবি সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। জনগণের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনা করে হেলিকপ্টার থেকে সরাসরি না ফেলে তাহিরপুর উপজেলার দুর্গম সীমান্তবর্তী টেকেরহাট ও চানঁপুর এলাকার বন্যাদুর্গত ১০০০ পরিবারের প্রায় ৫০০০ জন অসহায় বানভাসি মানুষের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে।

          এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বানভাসি অসহায় জনগোষ্ঠীর উদ্ধার তৎপরতা ও তাদের মাঝে প্রয়োজনীয় ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছে বিজিবি। আজ বিজিবি’র সুনামগঞ্জ ব্যাটালিয়নের তত্বাবধানে তাহিরপুর উপজেলার দুর্গম সীমান্তবর্তী বন্যাদুর্গত টেকেরহাট এলাকায় ৩৫০টি পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী, সুনামগঞ্জ ব্যাটালিয়ন সদরের আশপাশে বিভিন্ন এলাকার ২০০ প্যাকেট রান্না করা খাবার এবং ১০০০ বোতল বিশুদ্ধ পানি বিতরণ; সিলেট ব্যাটালিয়নের তত্বাবধানে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সীমান্তবর্তী ভোলাগঞ্জ এলাকার ২০০টি অসহায় পরিবার; বিয়ানীবাজার ব্যাটালিয়নের তত্বাবধানে নয়াগ্রাম এলাকার ৩০টি পরিবার এবং সীমান্ত পরিবার কল্যাণ সমিতি (সীপকস), কুড়িগ্রাম উপশাখা কর্তৃক ধরলা নদীর পার সংলগ্ন বন্যাকবলিত ৫০টি অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

          এলক্ষ্যে বিজিবি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার জন্য ০১৭৬৯৬০০৫৫৫ এবং ০১৮৮৯৬০০৫৫৫ দুটি টোল ফ্রি নম্বর চালু করেছে।

 

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর সাথে ইতালির রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

 

ঢাকা, ৯ আষাঢ় (২৩ জুন) :    

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের সাথে আজ সচিবালয়ে তাঁর অফিস কক্ষে বাংলাদেশে নিযুক্ত ইতালির রাষ্ট্রদূত Enrico Nunziata সাক্ষাৎ করেন। এ সময় তাঁরা পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। 

রাষ্ট্রদূত জ্বালানি, বিদ্যুৎ ও প্রযুক্তি খাতে ইতালির অবস্থা তুলে ধরেন। এ সময় ডিকার্বোনাইজেশন, বায়ো রিফাইনিং, নবায়নযোগ্য জ্বালানি, হাইড্রোকার্বন প্রোডাকশন, এলএনজি, বায়ু বিদ্যুৎ ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা করা হয়। সভায় ইতালিয়ান রাষ্ট্রীয় সমন্বিত জ্বালানি কোম্পানি Eni SPA বাংলাদেশে এলএনজি সরবরাহে আগ্রহ প্রকাশ করে। তারা বাংলাদেশের টেকসই জ্বালানি ব্যবস্থায় অবদান রাখতে অনুসন্ধান, এলএনজি, বায়ো এবং ট্রেডিশনাল পরিশোধন কার্যকলাপ, বায়ু, জলবায়ু সংরক্ষণ, হাইড্রোজেন ও নব প্রযুক্তি বিষয়ে কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

প্রতিমন্ত্রী আলোচনাকালে বলেন, ইউরোপিয়ান কোম্পানিকে বাংলাদেশে কাজ করতে স্বাগত জানানো হবে। ইতালিয়ান কোম্পানি কীভাবে এলএনজি রপ্তানি করবে তার বিজনেস মডেল নিয়ে বিশেষজ্ঞ পর্যায়ে পর্যালোচনা হওয়া প্রয়োজন। হাইড্রোজেন ফুয়েল ও গভীর সমুদ্রে তেল-গ্যাস অনুসন্ধান নিয়ে অভিজ্ঞতা বিনিময় করা যেতে পারে। একটি নির্দিষ্ট ফ্রেমওয়ার্কের আওতায় কর্মকর্তা পর্যায়ে অভিজ্ঞতা বিনিময় করতে পারলে উভয় দেশ উপকৃত হবে।

এ সময় অন্যান্যের মাঝে ইনি এসপিএ’র ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার অ্যানালাইসিস এন্ড বিজনেস সাপোর্ট বিভাগের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রো পাইরেড্‌ডা ও এলএনজি বিজনেস ডেভলপমেনট বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাওরো রিনাওদো উপস্থিত ছিলেন।

 

 

কোরবানি উদ্‌যাপনে সরকারের পক্ষ থেকে পরিপূর্ণ প্রস্তুতি আছে : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

 

ঢাকা, ৯ আষাঢ় (২৩ জুন) :   

কোরবানি উদ্‌যাপনে সরকারের পক্ষ থেকে পরিপূর্ণ প্রস্তুতি আছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। 

আজ রাজধানীর ফার্মগেটে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে কোরবানির পশুর চাহিদা নিরূপণ, সরবরাহ ও অবাধ পরিবহণ নিশ্চিতকরণ সংক্রান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় সভাপতির বক্তৃতায় মন্ত্রী এ কথা জানান।

এ সময় তিনি বলেন, অন্যান্য বছরের মতো এবারও কোরবানির পশুর চাহিদা নিরূপণ করা হয়েছে। কোরবানির চাহিদার চেয়ে অতিরিক্ত পশু প্রস্তুত আছে। এবার কোরবানিযোগ্য পশুর সংখ্যা ১ কোটি ২১ লক্ষ ২৪ হাজার ৩৮৯টি। ফলে কোরবানির জন্য কোনোরকম সংশয়, সংকট বা আশঙ্কার কারণ নেই। কোরবানির হাটে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার জন্য পর্যাপ্ত সদস্য নিয়োগ করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, মুসলিম সম্প্রদায়ের জন্য ঈদুল আজহা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। এটি যাতে স্বাচ্ছন্দ্যের সঙ্গে এবং পরিপূর্ণ প্রস্তুতি নিয়ে উদ্‌যাপন করা যায় সে লক্ষ্যে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় ও সরকারের অন্যান্য দপ্তর-সংস্থা কাজ করছে। তিনি বলেন, বিগত বছরের ধারাবাহিকতায় এবারও কোনো খামারি নিজ বাড়ি থেকে পশু বিক্রি করলে তাকে হাসিল দিতে হবে না। কোনো খামারি তার পশু দূরবর্তী হাটে নিতে চাইলে, রাস্তাঘাটে জোর করে নামাতে বাধ্য করা যাবে না। এক্ষেত্রে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী কর্তৃপক্ষ, স্থানীয় সরকারের ইউনিট তথা পৌরসভা, উপজেলা বা ইউনিয়ন পরিষদ, সিটি কর্পোরেশন এ বিষয়টি নিশ্চিত করবে। হাটে আনার পথে কেউ প্রাণী বিক্রি করলে তার কাছ থেকে ইজারা গ্রাহক জোর করে চাঁদা বা হাসিল গ্রহণ করতে পারবে না। তিনি বলেন, অনলাইনে ক্রয়কৃত গরু পছন্দ না হলে টাকা ফেরত নেয়ার ব্যবস্থাও এবছর সংযোজন করা হচ্ছে। যাতে ক্রেতারা কোনোভাবেই প্রতারিত না হয়।

মন্ত্রী বলেন, মহাসড়কে বা যেখানে হাট বসালে যান চলাচল ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে এমন কিছু যাতে না হয় এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানানো হবে। সড়কে বা সেতুতে কোরবানির পশু পরিবাহী গাড়িকে প্রাধান্য দেওয়া হবে, যাতে রাস্তায় পশু আটকে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি না হয়। এক্ষেত্রে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরে একটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ চালু করা হবে। অধিদপ্তরের হটলাইন ১৬৩৫৮ চালু থাকবে। পশু পরিবহণে খামারিদের সমস্যা সমাধানে এ নিয়ন্ত্রণ কক্ষ কাজ করবে।

তিনি আরো বলেন, সিলেট-সুনামগঞ্জ অঞ্চলে সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় গবাদিপশুর খাবার সরবরাহ করা হচ্ছে, চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা করার বিষয়টিও চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে। কোরবানির সময় যাতে ঐ অঞ্চলে দেশের অন্য অঞ্চল থেকে পশু যেতে পারে সে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী, অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার, মো. তৌফিকুল আরিফ ও এস এম ফেরদৌস আলম, বিভাগীয় কমিশনারগণ, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মনজুর মোহাম্মদ শাহজাদাসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও উত্তর-দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

ঢাকা, ৯ আষাঢ় (২৩ জুন) :   

 

‘সাম্প্রতিক দিনগুলোতে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে, মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্যবিধি পালনে জনসাধারণকে পুনরায় উদ্বুদ্ধ ও সচেতনতা বৃদ্ধি করতে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আহ্বান’।

 

 

বন‌্যায় ক্ষতিগ্রস্থ টেলিযোগাযোগ নেটওয়ার্ক সচল কার্যক্রমের সর্বশেষ পরিস্থিতি

 

ঢাকা, ৯ আষাঢ় (২৩ জুন) :    

 

বন‌্যায় গ্রামীণফোন, রবি, বাংলালিংক ও টেলিটকের মোট ৩ হাজার ৬শ’ ১৭টি সাইটের মধ‌্যে ২ হাজার ৬টি সাইট ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এর মধ‌্যে ১ হাজার ৪৫৫টি সাইট পুনরায় সচল করা হয়েছে। অবশিষ্ট ৫৫১টি সাইট সচল করার জন‌্য কাজ চলছে।

সুনামগঞ্জ, সিলেট, নেত্রকোণা, কিশোরগঞ্জ, হবিগঞ্জ এবং মৌলভীবাজারে বন‌্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সাইটসমূহ সচল করতে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার-এর নির্দেশে এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব
মো: খলিলুর রহমানের তত্বাবধানে সার্বক্ষণিকভাবে ইন্টারনেট ও টেলিযোগাযোগ নেটওয়ার্ক সচল রাখার জন‌্য মনিটরিং করা হচ্ছে।

এর আগে বাংলাদেশ স‌্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড বঙ্গবন্ধু স‌্যাটেলাইট-১ এ সংযোগ স্থাপনের মাধ‌্যমে ইন্টারনেটসহ টেলিযোগাযোগ সংযোগ স্থাপনের জন‌্য সেনাবাহিনীর মাধ‌্যমে ১২টি ও বাংলাদেশ স‌্যাটেলাইট কোম্পানি নিজস্ব ব‌্যবস্থাপনায় আরো ২৯টি ভিস‌্যাট স্থাপনে কাজ করছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী সিলেট হাইটেক পার্ক, সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, সুনামগঞ্জ সার্কিট হাউজ, গোবিন্দগঞ্জ, দোয়ারা বাজার, দিরাই ও গোয়াইন ঘাটে  ৭টি ভিস‌্যাট হাব স্থাপন সম্পন্ন করেছে। আজ প্রয়োজন অনুযায়ী বিভিন্ন স্থানে আরও ৫টি ভিস‌্যাট হাব স্থাপনের কার্যক্রম সম্পন্ন হবে। বিএসসিএল সিলেট বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়, সিলেট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, সিলেট সদর উপজেলা কার্যালয়, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা, সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের বাংলো, বিশ্বরামপুর, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা কার্যালয়, জৈন্তাপুর, ছাতক, জগন্নাথপুর, দিরাই, দোয়ারা বাজার এবং জামালগঞ্জ ১৩টি ভিস‌্যাট হাব স্থাপন সম্পন্ন করেছে। এছাড়া আজকের মধ্যে কানাইঘাট, ধর্মশালা, তাহিরপুর, শাল্লা এবং কোম্পানিগঞ্জ উপজেলায় ৫টি ভিস‌্যাট হাব স্থাপন কার্যক্রম সম্পন্ন হবে। বিএসসিএল নেত্রকোণা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ভিস‌্যাট হাব স্থাপন সম্পন্ন করেছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে আরো ভিস‌্যাট যন্ত্রপাতি সরবরাহ করা হয়েছে। সরবরাহকৃত ভিস‌্যাট হাবগুলোর মধ‌্যে ৪ সেট ময়মনসিংহ ক‌্যান্টনমেন্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

সিলেটের গোয়াইন ঘাট এবং কানাইঘাট উপজেলা বাদে জেলার সকল উপজেলায় বিটিসিএল-এর ল‌্যান্ডফোন সচল রয়েছে। বিটিসিএল হবিগঞ্জ জেলার টেলিযোগাযোগ ব‌্যবস্থা সচল করেছে। সুনামগঞ্জে জেনারেটর স্থাপনের মাধ‌্যমে সুনামগঞ্জ জেলা সদরের টেলিযোগাযোগ ব‌্যবস্থা সচল করা হয়েছে। এছাড়া জামালগঞ্জ, পাগলা, বিশ্বম্বরপুর এবং তাহেপুর উপজেলা ল‌্যান্ডফোন ব‌্যবস্থা চালু রয়েছে।

 

 

বন্যাদুর্গত ১৫’শ পরিবারে পরিবেশমন্ত্রীর ত্রাণসামগ্রী বিতরণ

 

বড়লেখা (মৌলভীবাজার), ৯ আষাঢ় (২৩ জুন) :   

 

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন আজ মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার বন্যাকবলিত ১৫’শ অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেছেন। উপজেলার সুজানগর, তালিমপুর, দাসেরবাজার, বর্ণি, দক্ষিণভাগ উত্তর, দক্ষিণভাগ দক্ষিণ, উত্তর শাহবাজপুর এবং নিজবাহাদুরপুর ইউনিয়নের বন্যাকবলিত বিভিন্ন স্থান তিনি পরিদর্শন করেন এবং বন্যাদুর্গতদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী হিসেবে চাল, ডাল, আলু এবং শুকনো খাবার বিতরণ করেন।

ত্রাণ বিতরণকালে অন্যান্যের মধ্যে বড়লেখা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলী উপস্থিত ছিলেন।

বন্যাদুর্গতদের উদ্দেশ্যে পরিবেশমন্ত্রী বলেন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ মানুষদের তালিকা করে ক্ষতিপূরণ প্রদান করা হবে। যতদিন বন্যা থাকবে ততদিন খাদ্যসহ প্রয়োজনীয় সবকিছুর সরবরাহ করা হবে। তিনি বলেন, বন্যা আরম্ভ হওয়ায় সাথে সাথে প্রধানমন্ত্রী সেনাবাহিনীসহ সরকারের বিভিন্ন বাহিনী নিয়োগ করেন এবং বন্যাকবলিত মানুষের প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদানের ঘোষণা দেন। সরকারের পাশাপাশি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও এর সকল অঙ্গসংগঠন বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে থাকবে।

পরিবেশমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে বন্যাদুর্গতদের সাধ্যমতো সহায়তা প্রদানের জন্য প্রবাসী এবং সমাজের সামর্থ্যবান মানুষদের এগিয়ে আসার আহবান জানান। আমাদের দেশ বন্যাপ্রবণ উল্লেখ করে তিনি বলেন, এধরনের দুর্যোগের জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকতে হবে। তিনি এসময় যেকোনো প্রয়োজনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ দলীয় নেতৃবৃন্দের সাথে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন।

এরপূর্বে পরিবেশমন্ত্রী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগদান করেন এবং প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।

 

বাংলাদেশের যা কিছু অর্জন তা আওয়ামী লীগের হাত ধরেই : এনামুল হক শামীম

 

শরীয়তপুর, ৯ আষাড় (২৩ জুন) :

          পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, বাংলাদেশের যা কিছু অর্জন তা আওয়ামী লীগের হাত ধরেই। স্বাধীনতা অর্জনে নেতৃত্বদানকারী আওয়ামী লীগ দেশ পরিচালনা করে দেশের বাজেটের আকার, রাজস্ব আয়, রেমিট্যান্স, দারিদ্র্য নিরসন, খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, অবকাঠামো তৈরি ও উন্নয়ন এবং মানবসম্পদ উন্নয়নে সাফল্য এনেছে। যারসব কৃতিত্ব জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার।

          আজ নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

          এনামুল হক শামীম বলেন, দেশ স্বাধীন হওয়ার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকার মাত্র সাড়ে তিন বছর দেশ পরিচালনার সুযোগ পায়। জাতির পিতার অসমাপ্ত কাজগুলো বাস্তবায়ন করছে বর্তমান সরকার। খাদ্য উৎপাদনে বাংলাদেশ আজ স্বয়ংসম্পূর্ণ। আমরা এখন পুষ্টি নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করছি। মিয়ানমার ও ভারতের সাথে সমুদ্রসীমা বিরোধের শান্তিপূর্ণ নিষ্পত্তির মাধ্যমে বঙ্গোপসাগরে বিশাল এলাকার ওপর আমাদের সার্বভৌম অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। স্বাধীনতার পর বিগত ৫০ বছরে আমাদের যা কিছু অর্জন তা জাতির পিতা এবং আওয়ামী লীগের হাত ধরেই হয়েছে। আমাদের এই উন্নয়নের গতিধারা অব্যাহত থাকলে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ ২০৪১ সালের মধ্যেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও উন্নত-সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশে পরিণত হবে। কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ, তথ্যপ্রযুক্তি, শিল্প ব্যবসা-বাণিজ্যসহ আর্থসামাজিক উন্নয়নের প্রতিটি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের বুকে ‘রোল মডেল’। বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মর্যাদাশীল ‘উন্নয়নশীল’ দেশে উন্নীত হওয়ার বিষয়ে জাতিসংঘের চূড়ান্ত অনুমোদন লাভ করেছে।

          উপমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ থাকলে কোনো শক্তি আমাদের পরাজিত করতে পারবেনা। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে শপথ হোক, ঐক্যবদ্ধ হয়ে সংগঠনকে পরিচালিত ও শক্তিশালী করতে হবে।

 

বাঙালি জাতির সকল অর্জন এসেছে আওয়ামী লীগের হাত ধরে : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

 

ঢাকা, ৯ আষাড় (২৩ জুন) :

          তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, দীর্ঘ ৭৩ বছরের পথচলায় আওয়ামী লীগের হাত ধরেই বাঙালি জাতির সকল অর্জন এসেছে । 

          আজ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। 

          ড. হাছান বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে, বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ খাদ্য ঘাটতির দেশ থেকে খাদ্যে উদ্বৃত্তের দেশে, স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছে। অর্থাৎ বাঙালি জাতির সমস্ত অর্জন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেই হয়েছে।

          তিনি বলেন, স্বাধীনতার পর আরো একটি বড় অর্জন হচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে, আওয়ামী লীগ সরকারের নেতৃত্বে বিশ্ববেনিয়াদের বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে পদ্মা সেতু নির্মিত হয়েছে। তাই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ইতিহাস প্রকৃতপক্ষে বাঙালি জাতিরই ইতিহাস। বাঙালি জাতির সমস্ত অর্জনের সাথে জড়িয়ে আছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। 

          আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরো বলেন, আমাদের সামনে চ্যালেঞ্জ হচ্ছে এখনো স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি বাংলাদেশে আস্ফালন করে এবং তাদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক হচ্ছে বিএনপি। বিএনপি এখনো জামায়াতে ইসলামীকে নিয়ে রাজনীতি করে এবং তারা এখনো ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। বাংলাদেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি, স্বাধীনতার বিরুদ্ধে তারা এখনো ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সমস্ত ষড়যন্ত্রকে পরাস্ত করে আমরা বাংলাদেশকে উন্নতি ও সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি।

          অতীতে যেমন সমস্ত ষড়যন্ত্রকে ছিন্ন করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বিশেষ করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে গেছে, আমরা ইনশাআল্লাহ ২০৪১ সাল নাগাদ সমস্ত ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেই বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ রাষ্ট্রে পরিণত করবো এ প্রত্যয় ব্যক্ত করেন মন্ত্রী হাছান মাহ্‌মুদ। 

 

 

সোনার বাংলা প্রকল্পে আর্থিক লেনদেন করে প্রতারিত না হওয়ার আহ্বান কৃষি মন্ত্রণালয়ের

 

ঢাকা, ৯ আষাড় (২৩ জুন) :

সম্প্রতি ‘https://sites.google.com/view/sonarbanglap2022’ শীর্ষক ওয়েবপেজ হতে প্রকাশিত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিটি কৃষি মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষিতে স্বয়ংসম্পূর্ণ সোনার বাংলা গড়ার অঙ্গীকার পূরণের লক্ষ্যে কৃষি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন ‘সোনার বাংলা প্রকল্প’ সারাদেশে মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের মাঝে উন্নত মানের ধান বীজ, সার ও পুষ্টিকর ফসল বীজ বিনামূল্যে সরবরাহ করবে। এ লক্ষ্যে প্রতিটি ইউনিয়নে একজন করে অস্থায়ী চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ প্রদান করা হবে এবং প্রাথমিকভাবে প্রকল্পের মেয়াদ ১০ বছর হবে।  এ বিজ্ঞপ্তিতে কৃষি মন্ত্রণালয়ের নাম এবং বিজ্ঞপ্তির ওপরের অংশে কৃষি মন্ত্রণালয়ের স্লোগান ‘কৃষিই সমৃদ্ধি’ ব্যবহার করা হয়েছে।

প্রকৃতপক্ষে কৃষি মন্ত্রণালয়ের নিজস্ব তত্ত্বাবধানে, এমনকি কৃষি মন্ত্রণালয়ের অধীন ১৭টি দপ্তর ও সংস্থায় ‘সোনার বাংলা প্রকল্প’ নামে কোনো প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন বা প্রক্রিয়াধীন পর্যায়ে নেই।

‘সোনার বাংলা প্রকল্প’ নামক একটি অপরিচিত বেসরকারি সংস্থার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে কৃষি মন্ত্রণালয়ের নাম উল্লেখ করা এবং নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির ওপরের অংশে কৃষি মন্ত্রণালয়ের স্লোগান ‘কৃষিই সমৃদ্ধি’ ব্যবহার করা একটি অনৈতিক এবং বেআইনি কাজ। এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির কারণে কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান আর্থিক লেনদেন করে প্রতারিত হলে কৃষি মন্ত্রণালয় ও এর অধীন দপ্তর ও সংস্থার কোনো কর্মকর্তা বা কর্মচারী দায়ী থাকবে না। 

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular