ভৈরবে সোহেল হত্যার মামলার প্রধান আসামি দুলাল গ্রেফতার

আজ সোমবার ভোরে নারায়নগঞ্জের সোনারঁ গাও বারদি শান্তির বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতকে কিশোরগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়েছে গ্রেফতারকৃত সোহেল শহরের চন্ডিবের মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত নুর ইসলামের পুত্র।

উল্ল্যেখ্যঃ গত শুক্রবার বেলা ১০ টার দিকে গাজিরটেক রেললাইনের পূর্বপাশ থেকে সোহেলের রক্তাক্ত ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় মরদেহের পাশ থেকে একটি ধারালো ছুরি উদ্ধার করে জব্দ করা হয় । এ ঘটনায় সোহেলের বোন ময়না বেগম অজ্ঞাত নামাদের আসামি করে ওই দিনই ভৈরব থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে । মামলা দায়ের পর পুলিশ তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ৩৬ ঘন্টা পর দুলাল মিয়া কে গ্রেফতার করে

এবিষয়ে ভৈরব থানার অফিসার ইর্নাচাজ ওসি মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা ( পিপিএম), জানান পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দুলাল পরিকল্পিতভাবে সোহেলকে হত্যা করেছে। ঘটনার দিন রাতে সোহেল ও দুলাল এক সাথে মদ পান করে। পরে বিভাটেক নিয়ে তারা হত্যা সংঘঠিত স্থানে যায়। এ সময় দুলাল ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে সোহেলকে হত্যা করে পালিয়ে যায় বলে দুলাল স্বীকার করেছে।মামলা দায়ের পর পুলিশ তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ৩৬ ঘন্টা পর দুলাল মিয়া কে গ্রেফতার করে

এবিষয়ে ভৈরব থানার অফিসার ইর্নাচাজ ওসি মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা ( পিপিএম), জানান পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দুলাল পরিকল্পিতভাবে সোহেলকে হত্যা করেছে। ঘটনার দিন রাতে সোহেল ও দুলাল এক সাথে মদ পান করে। পরে বিভাটেক নিয়ে তারা হত্যা সংঘঠিত স্থানে যায়। এ সময় দুলাল ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে সোহেলকে হত্যা করে পালিয়ে যায় বলে দুলাল স্বীকার করেছে।

সর্বশেষ