ফের চালু বন্ধন ও মৈত্রী সার্ভিস

তরিকুল ইসলাম, ঢাকা:

২৬ মাস পর ফের চালু হচ্ছে ঢাকা-কলকাতা ও ঢাকা-জলপাইগুড়ি আন্তর্জাতিক রেলপথ। আজ রবিবার (২৯ মে) ঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ও খুলনা-কলকাতা বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। আর আগামী ১ জুন ঢাকা-নিউ জলপাইগুড়ি রেলপথে মিতালী এক্সপ্রেস ট্রেনের উদ্বোধন হবে।

এ উপলক্ষ্যে গত ২৩ মে থেকে কমলাপুর ও চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন থেকে আন্তর্জাতিক ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। এছাড়া রেলপথের ভিসাও দেওয়া হচ্ছে। করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালের ২৪ মার্চ থেকে বাংলাদেশ-ভারত যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। এ সময়ে দুই দেশের মধ্যে সড়ক ও আকাশপথে যাত্রীরা ভ্রমণ করলেও রেলপথে যাত্রী পরিবহন হতো না। এতে চরম বিপাকে পড়েন উভয় দেশের সাধারণ মানুষ, যাদের অধিকাংশই ট্রেনে ভ্রমণ করতেন।

রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) সরদার সাহাদাত আলী বলেন, আন্তর্জাতিক ট্রেন চলাচলের টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে মিতালী এক্সপ্রেস ট্রেনটি করোনার মধ্যেই গত ২৭ মার্চ উদ্বোধন হয়েছিল। কিন্তু যাত্রী চলাচল শুরু হয়নি। আগামী ১ জুন বুধবার ঢাকা-নিউ জলপাইগুড়ি রুটে নতুন মাত্রায় মিতালী এক্সপ্রেস ট্রেনটির উদ্বোধন করা হবে বলে তিনি জানান।

তিনি আরো জানান, ২৭ মাস বন্ধ থাকার পর রবিবার ঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস এবং খুলনা-কলকাতা বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেন চলবে। ইতিমধ্যে ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। গত ১৮ মে ভারত চিঠি দিয়ে ট্রেন তিনটি চালু করার বিষয়টি জানিয়েছে। তিনি জানান, প্রথম দিন কলকাতা  থেকে ঢাকার পথে মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল শুরু হবে। বাংলাদেশ রেলওয়ের একটি ট্রেন (রেক) দিয়ে এর যাত্রা শুরু হচ্ছে। অন্যদিকে কলকাতা থেকে খুলনার পথে বন্ধন এক্সপ্রেস আসবে ভারতীয় রেলের একটি ট্রেন নিয়ে। মিতালী এক্সপ্রেস ট্রেনটি নিউ জলপাইগুড়ি থেকে ছেড়ে ঢাকার পথে আসবে ভারতের ট্রেন নিয়ে। অর্থাৎ মৈত্রী ও বন্ধন এক্সপ্রেস ভারত ও বাংলাদেশের ট্রেনের সমন্বয়ে চলাচল করবে। আর মিতালী এক্সপ্রেস চলবে শুধু ভারতের ট্রেন দিয়ে।

উল্লেখ্য, ঢাকা-কলকাতার মধ্যে মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল শুরু হয় ২০০৮ সাল থেকে। বন্ধ হওয়ার আগে বৃহস্পতিবার বাদে সপ্তাহের সব দিনই এই ট্রেন চলাচল করত। আজ রবিবার থেকে আগের মতোই চলাচল করবে। খুলনা-কলকাতা বন্ধন এক্সপ্রেস চালু হয় ২০১৭ সালে। বাংলাদেশ থেকে বৃহস্পতিবার ও রবিবার দুই দিন এই ট্রেন ছেড়ে যাবে। ভারত থেকে আসবে দুই দিন। রেলওয়ে অপারেশন দপ্তর জানায়, মিতালী এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে নিউ জলপাইগুড়ি পর্যন্ত এসি বার্থের ভাড়া হবে ৪ হাজার ৯০৫ টাকা। এসি সিটের ভাড়া ৩ হাজার ৮০৫ টাকা। আর এসি চেয়ারের ভাড়া ২ হাজার ৭০৫ টাকা।

সর্বশেষ