Friday, September 30, 2022
Homeবিভাগীয় খবরশিক্ষা অফিসের দুই কর্মচারীর পরকীয়া হাতেনাতে ধরলেন স্ত্রী

শিক্ষা অফিসের দুই কর্মচারীর পরকীয়া হাতেনাতে ধরলেন স্ত্রী

এম আর ওয়াসিম, ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি :

কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের দুই কর্মচারী অবৈধ সম্পর্কের (পরকীয়া) ঘটনা হাতেনাতে ধরলেন স্ত্রী শামসুন্নাহার।

আজ শনিবার দুপুরে শহরের কমলাপুর এলাকার একটি আবাসিক বিল্ডিংয়ে চারতলায় ফ্লাট বাসায় পরকীয়াতে আসক্ত দুই নারী পরুষকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আটক করা হয়। আটককৃত পুরুষ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের অফিস সহায়ক মোকসেদ আলী ও একই অফিসে মাস্টার রোলে থাকা আয়া কল্পনা বেগম।

পরে আটককৃতদের নিয়ে আসা হয় উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে আনা হলে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপার স্বপ্না বেগম।

পরে তার রুমে কর্মচারী কল্পনা বেগম ও ভুক্তভোগী স্ত্রী শামসুন্নাহারসহ স্থানীয় লোকজন উপস্থিত হন। এসময় শিক্ষা অফিসের কর্মচারী মোকসেদ আলীর স্ত্রীর অভিযোগ শুনেন এবং তাকে সকল ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন একাডেমিক সুপার।

এঘটনায় অভিযুক্ত মোকসেদ আলী জানান, তার স্ত্রীর যন্ত্রণায় বাধ্য হয়ে ওই নারী সাথে প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। তার বিয়ে করেছেন, তবে কাবিন রেজিষ্ট্রেশন হয়নি বলে স্বীকার করেন।

এদিকে অভিযুক্ত কল্পনা বেগম জানান, আগে তার প্রেম ছিলনা। শামসুন্নাহার আগে থেকে সন্দেহ করলে তারা পরবর্তীতে প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। তিন মাস আগে তাদের বিয়ে হয়েছে  বলে জানান।

ভুক্তভোগী স্ত্রী শামসুন্নাহার জানান, দীর্ঘদিন ধরে তারা পরীকীয়া করে যাচ্ছে।  এনিয়ে আগেও দরবার হয়েছে উপজেলার তৎকালীন ইউএনও ও শিক্ষা অফিসারদের সামনে। কেউ তখন তাকে পাত্তা দেয়নি। আজ হাতে নাতে এক রুম থেকে তাদের আটক করা হয় স্থানীয়দের সহযোগীয়। উপযুক্ত ৩মে ও নাবালক ২ ছেলেকে নিয়ে আর্থিক ও মানসিক কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন। তিনি এঘটনা জড়িত নারী ও স্বামীর দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি ও সঠিক সমাধান চান।

এবিষয়ে একাডেমি সুপার ভাইজার স্বপ্না বেগম বলেন, শিক্ষা অফিসার স্যার অসুস্থ ছুটিতে রয়েছে। উনি আসলে কর্মচারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ভুক্তভোগী যদি আইনি পদক্ষেপ নিতে চায় তাহলে তাকে সহযোগিতা করা হবে বলে জানান।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular