Wednesday, September 28, 2022
Homeশিক্ষাঙ্গনভিক্টোরিয়া পার্কে পথশিশুদের হাতেখড়ি স্কুলের যাত্রা শুরু

ভিক্টোরিয়া পার্কে পথশিশুদের হাতেখড়ি স্কুলের যাত্রা শুরু

জবি প্রতিনিধি: সুবিধাবঞ্চিত ও পথশিশুদের নিয়ে কাজ করা তারুণ্যনির্ভর সংগঠন ‘পাঠশালা’- এর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শাখা ও ঢাকা জোন শাখার উদ্যোগে রাজধানীর পুরান ঢাকায় ‘হাতেখড়ি স্কুল’ এর যাত্রা শুরু হয়েছে। পথশিশুদের প্রাথমিক শিক্ষায় শিক্ষিত করার পাশাপাশি এক বেলা আহারের ব্যবস্থা করবে সংগঠনটি। সহযোগিতা করবে ‘GO UP Foundation’।

শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২ টা ৩০ মিনিটে পুরান ঢাকার সদরঘাট এলাকায় অবস্থিত ভিক্টোরিয়া পার্কে হাতেখড়ি স্কুলের উদ্বোধন করা হয়। এসময় পাঠশালা জবি শাখা ও ঢাকা জোনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ভিক্টোরিয়া পার্ক ও এর আশেপাশের এলাকার সুবিধাবঞ্চিত ও পথশিশুদের নিয়ে এই স্কুলের যাত্রা শুরু হয়। এসময় প্রায় ৪০ জন সুবিধাবঞ্চিত শিশু উপস্থিত ছিলেন। স্কুলের উদ্বোধন কার্যক্রম শেষে শিশুদের পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে সচেতন করা হয়। এরপর পাঠদানের মধ্য দিয়ে হাতেখড়ি স্কুলের যাত্রা শুরু হয়। এরপর পথশিশুদের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হয়।

সপ্তাহে একদিন নিয়মিতভাবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা জোনের স্বেচ্ছাসেবীরা এই স্কুলে পাঠদান করাবেন। সেই সাথে পথশিশুদের একবেলা নাস্তার ব্যবস্থাও করা হবে। ভিক্টোরিয়া পার্কেই মাদুর বিছিয়ে স্কুলটির পাঠদান কার্যক্রম চলবে। পাঠশালার সাথে মিলিত হয়ে সহযোগিতা করবে পথশিশুদের নিয়ে কাজ করা ‘GO UP Foundation’।

পাঠশালা জবি শাখার সভাপতি খাইরুল ইসলাম বলেন, সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুদেরও শিক্ষার অধিকার রয়েছে। তাদের প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করতেই এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ইনশাআল্লাহ এই ধারা অব্যাহত থাকবে।

পাঠশালা জবি শাখার সাধারণ সম্পাদক ইউছুব ওসমান বলেন, সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষা থেকে দূরে থাকার প্রধান কারণ হচ্ছে খুধা। আহার যোগাতেই তারা শিশুশ্রমসহ নানা ধরণের অপকর্মে জড়িয়ে পড়ে। সেজন্য তাদের স্কুলমুখী করতে একবেলা আহারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আপাতত আমরা সপ্তাহে একদিন শিক্ষাদানের পাশাপাশি খাবার বিতরণ করবো। পর্যায়ক্রমে এর ব্যাপ্তি বাড়ানো হবে। কেউ যদি এই মহৎ উদ্যোগে আমাদের পাশে দাঁড়ায় তাহলে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের কাছেও শিক্ষার আলো পৌঁছাবে।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি পথশিশু এবং সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্য নিয়ে পাঠশালা প্রতিষ্ঠিত হয়। ইতোমধ্যে বিভিন্ন সময় পথশিশু এবং সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষাসামগ্রী বিতরণ, লেখাপড়ার পাশাপাশি প্রতিভা বিকাশে সহায়তা, ‘হাতেখড়ি-স্কুল’ প্রতিষ্ঠা, স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে আলাদা আলাদাভবে বিভিন্ন শিক্ষামূলক অনুষ্ঠান, প্রতিযোগিতা এবং সেমিনার আয়োজন করে আসছে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular