শপথের পর গ্রেফতারকৃত সেই নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানের জামিনে মুক্তি

শপথের পর গ্রেফতারকৃত সেই নবনির্বাচিত  চেয়ারম্যানের জামিনে মুক্তি

এম আর ওয়াসিম, ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ 

নির্বাচিত হয়ে শপথ নিতে গিয়ে গ্রেফতার ভৈরবের কালিকাপ্রসাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. লিটন মিয়াকে জামিনে মুক্তির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত- ২ এর বিচারক পার্থ ভদ্র তার জামিন মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার চেয়ারম্যান লিটন মিয়া কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে শপথ নেওয়ার পর সম্মেলন কক্ষ থেকে বের হলে ডিবি পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায়।

২৬ ডিসেম্বর ভৈরবে ইউপি নির্বাচনের দিন একটি ভোট কেন্দ্রে গোলযোগ হলে জনতা পুলিশের ওপর আক্রমণ চালায়। এসময় পুলিশ ৫ রাউন্ড গুলি করে। এ ঘটনায় নির্বাচনের দিন রাতে পুলিশ বাদী হয়ে ভৈরব থানায় একটি পুলিশ অ্যাসাল্ট মামলা করে।

এই মামলায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. লিটন মিয়াসহ ছয়জনের নাম উল্লেখসহ ৫০ জন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করা হয়। মামলার আসামি হিসেবে তাকে শপথের দিন ডিবি পুলিশ গ্রেফতার করে।

ভৈরব থানা সূত্রে জানা গেছে, চেয়ারম্যান মো. লিটন মিয়াকে গ্রেফতারের পর আদালত জামিন না দিয়ে তাকে কারাগারে পাঠায়। এরপর পুলিশ মামলাটির তদন্ত শেষ চার্জশিট বৃহস্পতিবার আদালতে দাখিল করে।

মামলার অভিযোগ থেকে চেয়ারম্যান লিটন মিয়া ও তার ভাতিজা ফজলুল কবিরকে অব্যাহতি দিয়ে চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে আদালতে চার্জশিট পাঠায় পুলিশ। চার্জশিটে চেয়ারম্যানের নাম বাদ দেয়ায় আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন।

কিশোরগঞ্জ আদালতের কোর্ট পরিদর্শক মো. আবুবকর সিদ্দিক যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন।

এছাড়া চেয়ারম্যানের ভাতিজা ফজলুল কবির মোবাইল ফোনে জামিনের বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

ভৈরব থানার উপ- পরিদর্শক ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রিগান যুগান্তরকে জানান, পুলিশ অ্যাসাল্ট মামলাটির চার্জশিট বৃহস্পতিবার সকালে কিশোরগঞ্জ আদালতে দাখিল করা হয়। মামলায় চারজনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে এবং চেয়ারম্যান লিটন মিয়া ও তার ভাতিজা ফজলুল কবিরকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয় বলে তিনি স্বীকার করেন

সর্বশেষ