দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউপির চেয়ারম্যান শাহজালাল মালের বিরুদ্ধে অপপ্রচার : নিন্দা প্রতিবাদ

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউপির ৩ বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান  ও সখিপুর থানা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহজালাল মাল ও তার ভাই মিন্টু মালের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের নিন্দা প্রতিবাদ জানিয়েছেন, সখিপুর থানা ও দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউনিয়নের নানান শ্রেণী পেশার মানুষ।

জানাগেছে, মো: শাহজালাল মাল ও তার পরিবারের সদস্যদের সুনাম নষ্টের পাঁয়তারার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান শাহজালাল মাল যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে ন্যায় বিচার কামনা করেছেন।

আরও জানাগেছে, শরীয়তপুরের দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শাহজালাল মাল দীর্ঘদিন যাবৎ আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থেকে মানুষের কল্যাণে কাজ করে চলছেন। তিনি মানুষের যে কোনো বিপদে আপদে এগিয়ে যায়। তিনি গরিব-দুঃখী মানুষের হৃদয়ের স্পন্দন। এজন্য দক্ষিণ তারাবুনিয়া-সখিপুর -ভেদরগঞ্জ উপজেলা সহ জেলা ব্যাপী তাঁর সুনাম ছড়িয়ে পড়ে। এতে করে প্রতিহিংসার আগুনে জ্বলে ওঠে একটি কুচক্রীমহল। তারই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি ওই মহলটি নানান মাধ্যমে এই ত্যাগী আওয়ামীলীগ নেতা ও সফল চেয়ারম্যান শাহজালাল মালের সুনাম নষ্টের পাঁয়তারা করে চলছে। বিভিন্ন মাধ্যমে তার নামে অপপ্রচার চালাচ্ছে।

এদিকে, চেয়ারম্যান শাহজালাল মাল ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে নানান মাধ্যমে অপপ্রচার ও সুনাম নষ্টের পাঁয়তারা করায় ফুঁসে উঠেছে সাধারন জনগণ ও দলের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা।

আরও জানাগেছে, বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারী) সকালে একটি কুচক্রীমহল আবারও চেয়ারম্যান শাহজালালের সুনাম নষ্ট করার উদ্দেশ্য দক্ষিণ তারাবুনিয়া যায়। তখন এলাকাবাসী ওই কুচক্রী মহলের সদস্যদের গণধোলাই দেয়। তখন চেয়ারম্যানই আবার রক্ষা করে তাদেরকে। এ কারণে চেয়ারম্যান বেশ প্রসংশিত হয়েছেন। তবে চেয়ারম্যানের সুনাম করতে ওই কুচক্রীমহল আবারও নানান মাধ্যমে পায়তারা শুরু করেছে। তারা অবিলম্বে গুজব ও অপপ্রচারকারীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে।

এব্যাপারে চেয়ারম্যান শাহজালাল মাল বলেন, কুচক্রীমহল যতই ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার করুক; তাতে আমি থামবো না। আমি দল ও জনগণের জন্য সবসময় কাজ করেই যাবো। আমি সারাজীবন মানুষের কল্যাণে কাজ করতে চাই। এজন্য সকলের দোয়া ও আশির্বাদ কামনা করছি।

এব্যাপারে দক্ষিণ তারাবুনিয়া সহ বিভিন্ন এলাকার লোকজন ও দলীয় নেতাকর্মীরা বলেন, চেয়ারম্যান শাহজালাল মাল দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামীলীগের রাজনীতি করে আসছে। সে মানুষের বিপদে আপদে পাশে দাঁড়ায়। তবে একটি কুচক্রীমহল সম্প্রতি তাঁর পিছু লেগেছে। কিন্তু তারা সফল হবে না। আমরা অতীতে তাঁর সাথে ছিলাম, বর্তমানে আছি, ভবিষ্যতেও থাকবো, ইনশাআল্লাহ।

উল্লেখ্য, সাংবাদিক খোরশেদ আলম বাবুল সস্প্রতি দক্ষিণ তারাবুনিয়ায় গিয়ে জনতার হাতে গণধোলাইয়ের শিকার হয়। পরে তিনি ওই বিষয়টি নিয়ে শাহজালাল মাল ও তার ভাই মিন্টু মালের বিরুদ্ধে নানান মাধ্যমে অপপ্রচার চালাচ্ছে। এতে করে নানান শ্রেণী পেশার  মানুষ তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে।

সর্বশেষ