টেকসই স্থাপনা নির্মাণ ও ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের স্থায়ীত্ব বৃদ্ধিতে যৌথভাবে কাজ করছে সরকার ও জাইকা : গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী

টেকসই স্থাপনা নির্মাণ ও ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের স্থায়ীত্ব বৃদ্ধিতে যৌথভাবে কাজ করছে সরকার ও জাইকা : গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী

টেকসই স্থাপনা নির্মাণ ও ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের স্থায়ীত্ব বৃদ্ধিতে যৌথভাবে কাজ করছে সরকার ও জাইকা : গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা ১১ ডিসেম্বর ২০২১ :

 

গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ বলেছেন, ভূমিকম্প সহনীয় টেকসই ভবন নির্মাণ এবং ঝুঁকিপূর্ণ গুরুত্বপূর্ণ পুরাতন ভবনের স্থায়ীত্ব বৃদ্ধিতে সরকার ও জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থা (জাইকা) যৌথভাবে কাজ করছে।

আজ রাজধানীর একটি হোটেলে গণপূর্ত অধিদপ্তর ও জাইকার বাস্তবায়নাধীন Promoting Building Safety for Desaster Risk Reduction (BSPP) প্রকল্পের আওতায় আয়োজিত Enhancement of Building Safety in Bangladesh শীর্ষক সেমিনারের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাপান বাংলাদেশের পরীক্ষিত বন্ধু। ভূমিকম্প সহনীয় স্থাপনা নির্মাণে জাপানের বিস্তর অভিজ্ঞতা রয়েছে। জাপান এবং বাংলাদেশের স্থপতিদের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের মাধ্যমে টেকসই স্থাপনা নির্মাণের একটি অগ্রসর প্লাটফর্ম তৈরি করেছে এই প্রকল্প।

উল্লেখ্য, এ প্রকল্পের আওতায় দক্ষ জনবল তৈরির উদ্দেশ্যে ইতোমধ্যে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে ৫৪টি সেমিনারের মাধ্যমে ১ হাজার ৯শ’ জন প্রকৌশলী, স্থপতি ও সরকারি কর্মকর্তাকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। কারিগরি দক্ষতা বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে এ প্রকল্পের আওতায় নগর অঞ্চলে ভূমিকম্প সহনীয় স্থাপনা নির্মাণের ক্ষেত্রে হ্যান্ডবুক ম্যানুয়াল প্রণয়ন করা হয়েছে। এছাড়া রেট্রোফিটিং প্রযুক্তির মাধ্যমে এ প্রকল্পের আওতায় রেডিও সেন্টার, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, পূর্তভবন প্রভৃতির গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার স্থায়িত্ব বৃদ্ধি করা হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী কারিগরি দক্ষতা বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহযোগিতা প্রদানের জন্য জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থার (জাইকা) সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্মচারীদের ধন্যবাদ জানান।

গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মোঃ শামীম আক্তারের সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো: শহীদ উল্লা খন্দকার ও বাংলাদেশের নিযুক্ত জাইকার প্রধান রিপ্রেজেন্টেটিভ হায়াকাওয়া ইউহো।

অনুষ্ঠানের গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়, গণপূর্ত অধিদপ্তর ও জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থার (জাইকা)  ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ