সৃষ্টিশীল কাজের মাধ্যমেই মানুষ মৃত্যুর পরেও বেঁচে থাকে : শামীম

স্টাফ রিপোর্টার: পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, মানুষের জীবনকে বয়সের সীমারেখা দিয়ে পরিমাপ করা যায় না। দীর্ঘজীবন মানুষের বড়ত্বকে প্রকাশ করে না। কিন্তু কর্মের ফল এবং গুণাগুণ বিদ্যমান থাকবে পৃথিবী মানুষের জীবনকে বয়সের সীমারেখা দিয়ে পরিমাপ করা যায় না। কিন্তু নিজ কর্মের মাধ্যমে মানুষ বেঁচে থাকে অনন্তকাল। কর্মের দ্বারাই মানুষের মনে স্থায়ীভাবে জায়গা করে নেয়া যায়। তাই সৃষ্টিশীল কাজের মাধ্যমেই মানুষ মৃত্যুর পরেও বেঁচে থাকে।

শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় “শুভজন” নামক একটি সংগঠনের উদ্যোগে শুভজন পদক প্রদান ২০২০-২১, গুনীজন সম্মাননা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এনামুল হক শামীম আরও বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তাঁর কর্মের মাধ্যমে আজীবন বেঁচে থাকবেন। কারণ, তাঁর জন্ম না হলে বাংলাদেশ হতো না। বঙ্গবন্ধু সপরিবারে নিহত হওয়ার তাঁর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে এসে আওয়ামীলীগকে তিলে তিগে গড়ে তোলেন। তিনি চারবার প্রধানমন্ত্রী হয়ে পৃথিবীর ইতিহাসে এক বিরল নজির স্থাপন করেছেন। তিনি বাংলাদেশকে বিশ্বে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। তাই তাদেরকে অনুসরণ করতে হবে। তাদেরকে অনুসরণ করে কাজ করলেই দেশ এগিয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু চেয়ার প্রফেসর, অধ্যাপক ড. আতিউর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন, পুলিশের ডিআইজি (এঅ্যান্ডএফ) একেএম শহিদুর রহমান। সভাপতিত্ব করেন, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি এবং শুভজন উপদেষ্টা শাহিদ উল মুনীর।

অনুষ্ঠানে বরেন্য সংগীতশিল্পী সৈয়দ আব্দুল হাদী ও কথা সাহিত্যিক সেলিনা হোসেন সহ ১০জনকে গুনীজন সম্মাননা প্রদান করা হয়।

সর্বশেষ