জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু চিরজাগরুক হয়ে থাকবেন : ড. কলিমউল্লাহ

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত বর্ষকালব্যপী জুম ওয়েবিনারে আলোচনা সভার ১৩৫তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন রংপুর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোসাঃ আর্জিনা খানম এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন শিক্ষা ক্যাডারের সহযোগী অধ্যাপক মোঃ আবু সালেক খান।
সভায় গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন কুমিল্লার লাকসাম থেকে প্রভাষক কামাল উদ্দিন এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন নীলফামারীর জলঢাকা থেকে পিএইচডি গবেষক ফাতেমা তুজ-জোহরা লিমা।
সভাপতির বক্তৃতায় ড. কলিমউল্লাহ বলেন, জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু চিরজাগরুক হয়ে থাকবেন।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় আর্জিনা খানম বলেন,জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন বাঙালি জাতির মুক্তির দিশারি।
গবেষক সালেক খান বলেন,সংকল্পহীন কোনো পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা যায় না।
গবেষক ফাতেমা তুজ-জোহরা লিমা বলেন,‘আগামীর পৃথিবী যতবেশি আধুনিক হবে ততবেশি প্রাসঙ্গিক হবেন বঙ্গবন্ধু।
রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা এর সহযোগী অধ্যাপক দিপু সিদ্দিকী বলেন,পুঁজিবাদের যে ধারা এখন চলছে, তার বাইরে দাঁড়িয়ে বঙ্গবন্ধু যে সংবিধান প্রণয়ন করেছেন বাঙালির জন্য- বাঙালি জাতীয়তাবাদ, গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, ধর্মনিরপেক্ষতা- সেটিই হবে বিশ্বের প্রধান আধার এবং প্রধান জায়গা।

কামাল উদ্দিন বলেন,ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণই ছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক দূরদর্শিতার আধার।
সভায় সূচনা বক্তব্য প্রদান করেন দিনাজপুর বীরগঞ্জ উপজেলার ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব গোলাম মুর্শিদ অর্ণব।
এছাড়াও আলোচনায় অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন ব্যাংকের কর্মকর্তা ইএন রুমা।

সর্বশেষ