কাউন্সিলরের লোকজনের হামলায়  আওয়ামী লীগ নেতা আহত

এম আর ওয়াসিম ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে পৌর কাউন্সিলর ফজলু মিয়ার লোকজনের হামলায় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা সাখাওয়াত হোসেন সুজন আহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে পৌর শহরের জগন্নাথপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে। আহত আওয়ামী লীগ নেতা সাখাওয়াত হোসেন সুজন ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও একজন পাথর বালু ব্যবসায়ী। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ পুলিশ একজনকে আটক করেছে।

জানাগেছে, পৌর শহরের জগন্নাথপুরের বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধার মতিউর রহমানের মেয়ে মিতার সঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতা পাথর ও বালু ব্যবসায়ী সাখাওয়াত হোসেন সুজনের জায়গায় সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলছে। ফলে এ নিয়ে একে অপরের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। শুধু তাই নয়, বিষয়টি সমাধানে এলাকায় বেশ কয়েক বার সালিশ বৈঠকও বসে। কিন্তু এখনও বিষয়টি কোন সূরাহ হয়নি। এই ঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে একপক্ষ জায়গা দখল করতে গেলে হামলা ও মারধরের ঘটনা ঘটে।

আহত আওয়ামী লীগ নেতা সাখাওয়াত হোসেন সুজনের পরিবারের সদস্যদের দাবী, পৌর কাউন্সিল ফজলু মিয়া তার লোকজন নিয়ে জায়গা দখল নিতে যায়। এসময় সুজন বাঁধা দিলে তার উপর হামলা করে এবং মারপিট শুরু করে। এতে তিনি গুরুতর আহত হয়েছেন। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ফজলু মিয়া হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সুজন ও তার লোকজনই আগে হামলা চালায়। পরে তিনি বিষয়টি থানা পুলিশকে অবগত করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে।

এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভৈরব থানার ওসি মো. শাহিন। তবে, এ ঘটনায় কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি বলেও জানান তিনি।

সর্বশেষ