রাজধানীর পল্লবীতে বিটিআরসি ও র‌্যাবের যৌথ অভিযান : গ্রেপ্তার ৭

0
37
রাজধানীর পল্লবীতে বিটিআরসি ও র‌্যাবের যৌথ অভিযান : গ্রেপ্তার ৭
ঢাকা, ১০ নভেম্বর ২০২১:
নামী-দামী বিভিন্ন ব্র্যান্ডের অনুমোদনবিহীন মোবাইলফোন বিক্রির অভিযোগে রাজধানীর পল্লবীর একটি শপিংমলে অভিযান পরিচালনা করেছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) এর পরিদর্শক দল ও র‌্যাব-৪ এর সদস্যরা। এসময় ৩০৯টি অবৈধ/অনুমোদনবিহীন/চোরাই মোবাইলফোন জব্দসহ চোরাকারবারী চক্রের ০৭ (সাত) সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়।
জব্দকৃত মোবাইলের মধ্যে রয়েছে ভিভো ব্র্যান্ডের-৩৮ টি, অপ্পো ব্র্যান্ডের-৬৩ টি, স্যামসাং ব্র্যান্ডের-০৯ টি, রেডমি ব্র্যান্ডের-৩৬ টি, সনি এক্সপ্রিয়া ব্র্যান্ডের-০২ টি, আইফোন-৩৭ টি, এইচটিসি ব্র্যান্ডের-০৪ টি, সিম্ফোনি ব্র্যান্ডের-০১ টি, এলজি ব্র্যান্ডের-০৩ টি, নোকিয়া ব্র্যান্ডের-০২ টি, রিয়েলমি ব্র্যান্ডের-০৭ টি, পকো ব্র্যান্ডের-০১ টি, নর্জো ব্র্যান্ডের-০১ টিসহ সর্বমোট ৩০৯ টি অনিবন্ধিত মোবাইল ফোন।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মাহমুদুল হাসান মাসুদ (২৮), জেলা-বাহ্মনবাড়িয়া, মোঃ জিসান (২৫), জেলা-ঢাকা, মোঃ রাসেল (২৮), জেলা-রাঙ্গামাটি, বিপ্লব হোসেন (৩২), জেলা-চাঁদপুর, মোঃ রায়হান (২৩), জেলা-ঢাকা, মোঃ রকি (১৯), জেলা-ঢাকা, মোঃ হাসিবুল ইসলাম (২১), জেলা-ঢাকা। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে দন্ডবিধি ৪১৩/৩৪ ধারায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন এবং অন্যান্য সহযোগীদের গ্রেফতারের জন্য গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রয়েছে।
অভিযান চলাকালীন সময়ে বিটিআরসি’র প্রতিনিধি দল তাদের নিজস্ব সফটওয়ায়ের মাধ্যমে আইএমইআই নম্বর যাচাই করে ৩০৯ টি মোবাইল ফোনকে অনিবন্ধিত ঘোষণা করেন এবং তাদের সহায়তায় র‌্যাব উক্ত মোবাইল ফোন গুলো জব্দ করে। গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, তারা গত কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন দেশ হতে চোরাই পথে অবৈধভাবে উক্ত মোবাইল ফোন দেশে নিয়ে আসে এবং সরকারের নির্ধারিত ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করে তা জনসাধারণের নিকট বিক্রয় করে।
এ ধরণের অনিবন্ধিত মোবাইল ফোন ব্যবহার করে অপরাধ করলে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সহজে সনাক্ত করতে পারে না বিধায় অপরাধীরা এর মাধ্যমে বিভিন্ন প্রকার অপরাধমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে।
মোবাইলফোনসহ অন্যান্য বেতার যন্ত্রপাতিসমূহের অবৈধ আমদানি, বাজারজাত, বিক্রয় ও বিতরণ বন্ধে বিটিআরসি হতে অভিযান চলমান থাকবে। তাই সর্বসাধারণকে মোবাইলফোনের বৈধতা যাচাইপূর্বক ক্রয়ের জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। এছাড়াও অবৈধ ও অনুমোদনবিহীন যেকোন ধরণের মোবাইলফোন ক্রয়-বিক্রয় হতে বিরত থাকার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে বিটিআরসি পক্ষ থেকে বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here