শরীয়তপুরের রুদ্রকরে আ.লীগ অফিসে বিদ্রোহী প্রার্থীর হামলা

0
68

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:আসন্ন শরীয়তপুর সদর উপজেলার রুদ্রকর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান ঢালীর নেতৃত্বে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ অফিসে অতর্কিত হামলা-ভাঙচুর, বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (৫ নভেম্বর) দিবাগত রাত ১১ টার দিকে সুবচনী বাজারে এঘটনা ঘটে। এতে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব মোঃ সিরাজুল ইসলাম ঢালী গুরুত আহত হয়। এসময় আওয়ামীলীগের প্রায় ১০/১২ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, নৌকার প্রার্থী প্রচারণা শেষে ইউরিয়ন আওয়ামীলীগের অফিসে আসলে বিদ্রোহী প্রার্থী আনোরস প্রতীকের হাবিবুর রহমান ঢালীর লোকজন । বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুর করে। এ সময় সিরাজুল ইসলাম ঢালী গুরতর আহত হন। এসময় আওয়ামীলীগের ১০/১২ জন নেতাকর্মী আহত হয়। সিরাজ ঢালীর সমথর্কদের কয়েকটি মোটর সাইকেলও ভাঙচুর করে হামলাকারীরা। আহতদের শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুতর আহত সিরাজুল ইসলাম ঢালীকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এব্যাপারে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম ঢালীর ভাই রুহুল ঢালী বলেন, আমরা প্রচারণা শেষ করে সুবচনী বাজারে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের অফিসে এসে বসলে বিদ্রোহী প্রার্থী হাবিবুর রহমান ঢালীর নেতৃত্বে কয়েকশ লোক হামলা চালায়। নির্বাচনি অফিস ভাঙচুর করে। বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুর করে। এতে সিরাজুল ইসলাম ঢালী গুরতর আহত হন। এসময় আমাদের প্রায় ১০/১২ নেতাকর্মী আহত হয়।

অন্যদিকে বিদ্রোহী প্রার্থী হাবিবুর রহমান ঢালীর বক্তব্যের জন্য বারবার চেষ্ট করেও তাঁকে পাওয়া যায়নি।

এব্যাপারে জেলা ডিবি পুলিশের ওসি সাইফুল ইসলাম বলেন, পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। দোষীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here