Spread the love

বিনম্র শ্রদ্ধা ও সালাম।

ভূমি মন্ত্রণালয়ের ১৮.০৭.১৯৯৬ ইং তারিখের ২৯৫ নং স্মারকের অনুরোধে ‘প্রশাসনিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সচিব কমিটি’র ০৭.০৯.২০০২ ইং তারিখের সভায় ‘তহশিলদার’ ও ‘সহকারী তহশিলদার’ পদের নাম পরিবর্তন করে যথাক্রমে ‘ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা’ ও ‘ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা’ পদবী পরিবর্তনের সুপারিশ করা হয়। উক্ত সুপারিশের আলোকে মহামান্য রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে আজাদ রুহুল আমিন, মাননীয় সচিব,ভূমি মন্ত্রণালয় কর্তৃক স্বাক্ষরিত ভূমি মন্ত্রণালয়ের ১৮.০৯.২০০২ ইং তারিখের ৩৭২ নং প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ‘তহশিলদার’ ও ‘সহকারী তহশিলদার’ পদবী পরিবর্তন করে ‘ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা’ ও ‘ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা’ হিসাবে পদবী পরিবর্তন করা হয়।

পরবর্তীতে ভূমি ব্যবস্থাপনায় মাঠ প্রশাসনে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে সরকারী স্বার্থ রক্ষাকারী ‘ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা’ ও ‘ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তাগণের দায়িত্ব ও কর্মপরিধি বিবেচনায় ইউনিয়ন পর্যায়ে কর্মরত অন্যান্য বিভাগের কর্মকর্তাদের ন্যায় বিশেষ করে স্বাস্থ্য বিভাগের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার (সাবেক চিকিৎসা সহকারী) এবং উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের (সাবেক ব্লক সুপারভাইজার) পদ মর্যাদা ও বেতন স্কেলের সাথে সামঞ্জস্য রেখে ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীন ইউনিয়ন পর্যায়ে কর্মরত ‘ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা’ ও ‘ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তাগনের নিয়োগ বিধি সংশোধন ও বেতন স্কেল উন্নীত করনের জন্য ‘প্রশাসনিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সচিব কমিটি’র ০৯.০৪.২০০৯ ইং তারিখের সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

উল্লেখ্য যে, মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ কর্তৃক বিগত ০১.০৩.২০০৯ ইং তারিখের ১৩৯ নং স্মারকের পরিপত্রের মাধ্যমে ‘নিকার’ এর কার্যপরিধি সংশোধন করা হয়। উক্ত পরিপত্রে উল্লেখ আছে যে “বিভিন্ন অফিসের সাংগঠনিক কাঠামোভুক্ত নিম্ন শ্রেণীর পদকে উচ্চতর শ্রেণীতে উন্নীতকরণ, নতুন পদ সৃজন বা পদ বিলুপ্তকরণ ও সংশ্লিষ্ট সাংগঠনিক কাঠামো পরিবর্তন সংক্রান্ত প্রস্তাব এখন থেকে পূর্বের ন্যায় ‘প্রশাসনিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সচিব কমিটিতে বিবেচিত হবে এবং উক্ত কমিটির সুপারিশক্রমে প্রশাসনিক মন্ত্রণালয় কর্তৃক বিদ্যমান বিধি-বিধান ও আনুষ্ঠানিকতা অনুসরণপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে”। উক্ত পরিপত্রের আলোকে সচিব কমিটির সুপারিশই চুড়ান্ত বিধায় প্রশাসনিক মন্ত্রণালয় পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণ করে অর্থাৎ সচিব কমিটির অনুমোদিত বেতন স্কেল উন্নীত করণের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ভূমি মন্ত্রণালয় কর্তৃক ২৩.০৫.২০১০ ইং তারিখের ৪০৫ নং স্মারকে ‘ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা’ ও ‘ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তাগনের বেতন স্কেল উন্নীত করণের জিও জারী করা হয়। এর আলোকে উন্নীত বেতন স্কেলে ১২তম গ্রেডে ভিন্ন ভিন্ন নিয়োগ পত্রে রাজবাড়ী জেলায় ০৬ (ছয়) জন ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা নিয়োগ প্রদান করা হয় এবং তারা তিন বছর পর্যন্ত বেতন-ভাতাদি আহরণ করেন।

এদেশের মানুষের সেবা করাই আপনার ব্রত। আপনি দেশের মানুষের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। দেশের সার্বিক উন্নয়ন ও অর্থনীতির প্রবৃদ্ধিই তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ।
এরই ধারাবাহিকতায় “বেতন বৈষম্য দূরীকরণ সংক্রান্ত মন্ত্রীসভা কমিটি” ও আপনার সদয় অনুমোদনের পর সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ কর্তৃক বিগত ৩০.০৫.২০১৩ ইং তারিখের ১২৪ নং স্মারকে ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীন ইউনিয়ন পর্যায়ে কর্মরত ‘ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা’ ও ‘ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা’ পদের বেতন স্কেল কতিপয় শর্তে পূনঃনির্ধারণ করে আদেশ জারী করেন।এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য ভূমি মন্ত্রণালয় ২২.০৭.২০১৩ ইং তারিখের ৫০৭ ও ৫০৮ নং পরিপত্র জারী করেন।

আপনার যুগোপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণে সারাদেশের সকল ভূমি কর্মকর্তাদের পরিবারের মুখে হাসি ফুটেছিল। সে হাসি নিমিষেই বিলীন হয়ে যায় আপনার দেয়া “আপগ্রেডকৃত বেতন স্কেল” তৎকালীন জনপ্রশাসন সচিব মহোদয়ের টেলিফোনিক নির্দেশে সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে ২৫.০৭.২০১৩ তারিখের ৫২৬ নং স্মারকের স্থগিত আদেশের কারণে।

ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ও ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা পদের আপগ্রেড কৃত বেতন স্কেলের স্থগিত আদেশ থাকায় এবং উক্ত পদ দুটিতে পদোন্নতি ও নিয়োগ বন্ধ থাকায় ভূমি প্রশাসন স্থবির হয়ে পড়েছে।কোন কোন জেলায় একজন ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা/ ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তাকে ২/৩ টি অফিসের দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে যা অত্যন্ত কষ্টসাধ্য ও সরকারী রাজস্ব আদায়ের অন্তরায়।

এই ব্যাপারে নরসিংদী জেলার মনোহরদী উপজেলা লেবুতলা ইউনিয়ন ভূমি অফিসে কর্মরত ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ দুঃখ ভারাক্রান্ত হৃদয়ে বলেন গত প্রায় 20 বছর পূর্বে চাকুরীতে যোগদান করিয়া অদ্যবধি পর্যন্ত পদোন্নতি কিংবা সরকার প্রদত্ত উন্নীত বেতন স্কেলের কোনো সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছিনা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,মাননীয় ভূমিমন্ত্রী এবং মাননীয় ভূমি সচিব মহোদয়ের নিকট আমাদের ব্যথিত হৃদয়ের আকুল আবেদন – বর্ণিত প্রেক্ষাপট বিবেচনায়,সরকারের রূপকল্প-২১ বাস্তবায়ন,মাননীয় তথ্য ও প্রযুক্তি উপদেষ্টা মহোদয়ের ‘ডিজিটাল ভূমি ব্যবস্থাপনার বাস্তবায়ন, স্থবির হয়ে পড়া ভূমি রাজস্ব প্রশাসনে গতিশীলতা আনয়নের নিমিত্ত ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ও ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা পদের আপগ্রেডকৃত বেতন স্কেলের স্থগিত আদেশ প্রত্যাহারের সদয় নির্দেশনা,২৩.০৫.২০১০ ইং তারিখের ৪০৫ নং এবং পুনঃনির্ধারিত ৩০.০৫.২০১৩ ইং তারিখের ১২৪ নং স্মারকের দ্রুত বাস্তবায়নের সদয় নির্দেশনা প্রদান করে দেশের অবদমিত ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ও ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তাগনকে আপনার দেয়া ন্যায্য অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার সদয় নির্দেশনা প্রদানের জন্য আপনার কোমলমতি হৃদয়ের একান্ত কৃপা ও মহানুভবতা কামনা করছি।