হাই-স্পীড ইন্টারনেটের আওতায় কেরাণীগঞ্জ

ঢাকা, ৯ শ্রাবণ (২৪ জুলাই) : 

       কোভিড-১৯ এর বৈশ্বিক মহামারী পরিস্থিতিতে গত ২৬ মার্চ থেকে সারাদেশ কার্যত লকডাউন অবস্থায় রয়েছে এবং ৩০ মে পর্যন্ত সরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহ সাধারণ ছুটির আওতায় ছিল যা ৩১ মে তারিখ থেকে সীমিত আকারে শুরু হয়েছে। সারা দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এখনও সাধারণ ছুটির আওতায় রয়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সকল দাপ্তরিক কার্যক্রমের স্থবিরতা রোধকল্পে সরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহের স্বাভাবিক কার্যক্রম অব্যাহত রাখা আবশ্যক। সে লক্ষ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ সভা, সেমিনার, মাঠ পর্যায়ে পরিদর্শনসহ সকল গুরুত্বপূর্ণ কার্যক্রম Online এর মাধ্যমে সম্পন্ন করে আসছে।

       আগামীকাল ২৫ জুলাই সকাল ১১ টায় ইনফো-সরকার ৩য় পর্যায় প্রকল্পের মাধ্যমে স্থাপিত ঢাকা জেলার কেরাণীগঞ্জ উপজেলার আগানগর, কলাতিয়া, কালিন্দি, তেঘরিয়া, শাক্তা, শুভাঢ্যা, হযরতপুর এবং তারানগর ইউনিয়নসমূহের PoP (point of presence) সমূহ Zoom Online এর মাধ্যমে উদ্বোধন করা হবে।

       এ প্রকল্পের আওতায় প্রান্তিক জনপদে দ্রুতগতির ইন্টারনেট ব্রডব্যান্ড সংযোগ প্রদানের জন্য ২ হাজার ৬শ টি ইউনিয়নে পয়েন্ট অফ প্রেজেন্স (পিওপি) স্থাপন এবং ১৯ হাজার ৫ ’শ কি.মি অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল স্থাপনের মাধ্যমে উচ্চগতির নেটওয়ার্ক অবকাঠামো স্থাপন করা হচ্ছে। দেশের ইউনিয়ন পর্যায়ে ২৬ হাজার সরকারি অফিসে উচ্চগতির ইন্টারনেট সংযোগ প্রদান করা সম্ভব হবে। ইতোমধ্যে পুলিশের এক হাজার টি অফিসের মধ্যে VPN সংযোগ স্থাপন করা হয়েছে। দেশের ৬০ শতাংশ জনগণের ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।

       জাতীয় আইসিটি নীতি ২০১৫ এর লক্ষ্য অর্জনে বাংলাদেশের গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর জন্য ই-সেবাগুলিতে (e-Service) অনুপ্রবেশ নিশ্চিতকরণ, শহর এবং গ্রামের ডিজিটাল বৈষম্য দূরীকরণ এবং নারী-পুরুষের সমতা বাস্তবায়িত হবে। ইউনিয়ন পর্যায়ে এবং ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে (ইউডিসি) হাই-স্পীড ইন্টারনেট সংযোগ প্রদান, কারিগরি জ্ঞান বিতরণের মাধ্যমে যোগ্যতা বৃদ্ধি এবং আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। ২০২১ সালে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট গ্রাহক ২ দশমিক ২৫ শতাংশ থেকে ১২ শতাংশ এ উন্নীত হবে। ফলে জিডিপি ১ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে।

       এ প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে কেরাণীগঞ্জ উপজেলার সকল ইউনিয়নের ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে (ইউডিসি) হাই-স্পীড ইন্টারনেট সংযোগ প্রদানের মাধ্যমে সেবা প্রদানের সক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে এবং প্রান্তিক জনগণ দ্রুতগতির ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগের আওতায় আসবেন। ফলে তাদের সরকারি সকল ই-সেবা (e-Service) প্রাপ্তি নিশ্চিত হবে, শহর এবং গ্রামের ডিজিটাল বৈষম্য দূর হবে ।

       উদ্বোধন অনুষ্ঠানে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে Zoom Online এ সংযুক্ত থাকবেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, সংসদ সদস্য এডভোকেট মোঃ কামরুল ইসলাম এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এর সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম পিএএ। এছাড়াও Zoom Online এ সংযুক্ত থাকবেন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল এর নির্বাহী পরিচালক (অতিরিক্ত-সচিব) পার্থ প্রতিম দেব এবং ঢাকার বিভাগীয় কমিশনার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, পিএএ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করবেন বিকর্ণ কুমার ঘোষ, প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত-সচিব), ইনফো-সরকার ৩য় পর্যায় প্রকল্প। সভাপতিত্ব করবেন জেলা প্রশাসক, ঢাকা মোঃ শহীদুল ইসলাম।