সাত ডিসির বদলির আদেশ স্থগিত রাখার জন্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। পৌর নির্বাচন পর্যন্ত বদলির আদেশ স্থগিত রাখতে ওই চিঠিতে বলা হয়।

নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী, ফলাফল ঘোষণার পর ১৫ দিন পর্যন্ত ইসির পরামর্শ ছাড়া সংশ্লিষ্টদের বদলি না করার বিধান রয়েছে।

গত ২৮ জানুয়ারি ময়মনসিংহ, কুমিল্লা, দিনাজপুর, কুষ্টিয়া, হবিগঞ্জ, রাঙ্গামাটি, ঝিনাইদহ, জামালপুর ও ভোলায় ডিসি পদে রদবদলের আদেশ জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

এর মধ্যে জামালপুরের ডিসিকে ময়মনসিংহে এবং হবিগঞ্জের ডিসিকে কুষ্টিয়ায় বদলি করা হয়। অন্য সাত জেলায় নতুন কর্মকর্তাদের ডিসি হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। কিন্তু ১৪ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ ধাপের এবং ২৮ ফেব্রুয়ারি পঞ্চম ধাপের পৌরসভার ভোট থাকায় ইসি বদলি স্থগিতের জন্য চিঠি দেয়।

জনপ্রশাসন সচিবকে পাঠানো ওই চিঠিতে বলা হয়, ২৮ ফেব্রুয়ারিতে ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর ও কালীগঞ্জ পৌরসভা সাধারণ নির্বাচন, ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল পৌরসভা, ভোলা জেলায় চরফ্যাশন ও ভোলা পৌরসভাসহ ৩১টি পৌরসভায় সাধারণ নির্বাচন হবে। তাছাড়া একই তারিখে ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলা পরিষদের চেয়াম্যান পদে উপনির্বাচন এবং কুমিল্লা জেলার দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন হবে।

১৪ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লার জেলার হোমনা ও দাউদকান্দি পৌরসভা, ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর ও ত্রিশাল পৌরসভা, রাঙ্গামাটি জেলার রাঙ্গামটি পৌরসভাসহ ৫৬টি পৌরসভায় সাধারণ নির্বাচন হবে।

আর কুমিল্লা জেলার লাকসাম, বরুড়া ও চৌদ্দগ্রাম পৌরসভা, মায়মনসিংহ জেলায় ভালুকা, গৌরীপুর, ঈশ্বরগঞ্জ পৌরসভা, ভোলা জেলার বোরহানউদ্দিন ও গৌলতখান, দিনাজপুর জেলার হাকিমপুর পৌরসভা এবং ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু ও কোটচাঁদপুর পৌরসভাসহ ৬৪টি পৌরসভায় ৩০ জানুয়ারি সাধারণ নির্বাচন হয়েছে, যার ফলাফল ১০ ফেব্রুয়ারি গেজেট আকারে প্রকাশিত হবে।

নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করার কথা উল্লেখ করে ওই চিঠিতে বলা হয়, ‘নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করার স্বার্থে কুমিল্লা, ময়মনসিংহ, ঝিনাইদহ ও ভোলার বদলি আদেশ ২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ফলাফল গেজেটে প্রকাশিত হওয়া পর্যন্ত স্থগিত করার জন্য নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।’

একইভাবে রাঙ্গামাটির ডিসির বদলির আদেশ ১৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত; দিনাজপুর ও কুষ্টিয়ার ডিসির বদলির আদেশ ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ফলাফল গেজেটে প্রকাশিত না হওয়া পর্যন্ত স্থগিত রাখতে বলেছে ইসি।