সঠিক উপায়ে কোরবানীর পশুর চামড়া ছাড়িয়ে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখুন

ঢাকা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

চামড়া আমাদের গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় সম্পদ যা চামড়াজাত পণ্য শিল্পের প্রধান কাঁচামাল। দেশে আহরিত চামড়ার ৫০-৬০ ভাগ সংগৃহীত হয় ঈদুল আজহার মৌসুমে। সঠিকভাবে চামড়া না ছাড়ানো ও পরিবেশ সম্মতভাবে সংরক্ষণের অভাবে দেশে প্রতি বছর ৩০ শতাংশ চামড়া নষ্ট হয়।

সঠিকভাবে কোরবানির চামড়া ছাড়ানো ও সংক্ষণের জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয় গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। গণবিজ্ঞপ্তিটি হলো :-চামড়া আমাদের গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় সম্পদ যা চামড়াজাত পণ্য শিল্পের প্রধান কাঁচামাল।

দেশে আহরিত চামড়ার ৫০-৬০ ভাগ সংগৃহীত হয় ঈদুল আজহার মৌসুমে।

সঠিকভাবে চামড়া না ছাড়ানো ও পরিবেশ সম্মতভাবে সংরক্ষণের অভাবে দেশে প্রতি বছর ৩০ শতাংশ চামড়া নষ্ট হয়।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোরবানি দিন, ছাড়ানো চামড়ায় দ্রুত লবণ দিয়ে শুকনো স্থানে রাখুন।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক ও হ্যান্ড গ্লাভস পরে কোরবানির কাজ সম্পন্ন করুন। গরম ও আদ্রতাপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে কোরবানির চামড়ায় দ্রুত পচন ধরে নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

নষ্ট চামড়ার বাজার মূল্য এবং শিল্পে ব্যবহার উপযোগিতা উভয়ই কমে যায়।

চামড়া ছাড়ানোর সময় বাঁকানো মাথার ছুরি ব্যবহার করুন, লক্ষ্য রাখুন যাতে চামড়া কেটে না যায় বা কোনো দাগ না লাগে। 

ভালোভাবে ৭-৮ কেজি লবণ দিলে চামড়া সহজে পচেনা, ফলে দেখেশুনে ভাল দামে বিক্রি করা যায়।

চামড়া ছাড়ানোর পরপরই রক্ত-মাংস চর্বি-ময়লা পরিস্কার করে পর্যাপ্ত লবণ দিয়ে শুকনো স্থানে রাখুন যাতে রোদ, বৃষ্টি বা পানি না লাগে। কোরবানির বর্জ্য দ্রুত অপসারুণ করুন, স্থানটি ভালোভাবে ধুয়ে জীবাণুনাশক ছিটিয়ে দিন।