মহানগরীর হাজারি লেইনের ফার্মেসিতে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান: ৮০ হাজার টাকা অর্থদন্ড

চট্টগ্রাম, ২৩জুলাই, ২০২০:

চট্টগ্রাম মহানগরীর হাজারি লেইনের মেসার্স লুনা ফার্মেসীতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আলী হাসান।

ফার্মেসী দীর্ঘদিন ধরে দেশীয় ঔষধের আড়ালে অননুমোদিত ঔষধ, ভায়াগ্রা ও বিদেশী অননুমোদিত ঔষধ বিক্রি করছিল। ভ্রাম্যমান আদালত দেখতে পান, মুল ফার্মেসীর আউটলেটে স্যালাইন ছাড়া অন্য কোনো ঔষধ নেই। কিন্তু গোডাউন তল্লাশি করলে দেখা যায় সেখানে বেনামী অননুমোদিত ঔষধ, বিদেশি ঔষধ আর যৌন উত্তেজক ঔষধ ছাড়া আর কিছুই নেই। প্রতিষ্ঠানটির মালিক জনাব কানু নন্দি স্বীকার করেন যে তিনি শুধু এই বিদেশী ঔষধই বিক্রি করেন।

এসময় প্রতিষ্ঠানটি থেকে ১৪৯ ধরনের বিপুল পরিমানে ঔষধ জব্দ করা হয়। এছাড়াও ড্রাগ আইনে ৮০,০০০/- ( আশি হাজার টাকা) অর্থদন্ড দেন ভ্রাম্যমান আদালত। মালিকের কাছ থেকে ভবিষ্যতে এই অপরাধ আর করবেন না মর্মে মুচলেকা নেন ভ্রাম্যমান আদালত।

উক্ত অভিযানে র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক জনাব নুরুল আবছার ও ঔষধ প্রশাসন এর সহকারী পরিচালক হোসাইন মোহাম্মদ ইমরান অংশ নেন।