বৃক্ষায়ন কর্মসূচি জলবায়ু ও পরিবেশ রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক কমিটমেন্টের বহিঃপ্রকাশ: আ জ ম নাছির
চট্টগ্রাম, ২৭ জুলাই, ২০২০:
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জীবন বাঁচানোর প্রধান অনুষঙ্গ সবুজ উদ্ভিদ সংরক্ষনের উদ্যোগ নিয়েছেন। তিনি মুজিব বর্ষে সারা দেশে এককোটি বৃক্ষ চারা রোপন করে অক্সিজেন ভান্ডারকে সমৃদ্ধ করেছেন। এ কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নের মধ্যদিয়ে বিশ্ব জলবায়ু দুষণের বিরুদ্ধে একটি সরাসরি লড়াই। তাঁর আবেদন এক ইঞ্চি জমিকেও অনাবাদী রাখা যাবে না এবং এতেই কৃষি ও সবুজ বিপ্লবের সূচনা নিশ্চিত হবে।
আজ সকালে পাহাড়তলী রেলওয়ে উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন লোকো শেডে রেলওয়ে কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচীর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মেয়র এসব কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন হিরন, মো. গিয়াস উদ্দিন, শ্রমিক নেতা সফর আলী, সিরাজুল ইসলাম, শফি বাঙালি, ১৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম মাসুম, বেলাল আহমদ, এস এম মামুনুর রশিদ, আনিসুর রহমান চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।
সিটি মেয়র বলেন, করোনাকালে বিপন্ন জীবন ও প্রাণী বাঁচাতে অক্সিজেন সিলিন্ডিার খুঁজতে গিয়ে হয়রান হয়ে গেছি। এই অক্সিজেন তো প্রকৃতিতেই আছে এবং যা কার্বন ডাইঅক্সাইড শুষে নিয়ে বিশুদ্ধ আবহ নির্মাণ করে। অথচ সভ্যতাকে কলঙ্কিত করে কিছু দুষ্টজন প্রকৃতির মানুষ পাহাড় কাঁটা, নদী ও খাল দখল এবং বৃক্ষ নিধন করে যাচ্ছেন। এরা সামাজিক দুবৃর্ত্ত, এদের আইনের আওতায় আনতে হবে।
মেয়র বলেন, রেল মন্ত্রনালয়ের অধীনে চট্টগ্রামে অনেক ভূ-সম্পদ রয়েছে। এগুলোর অংশ বে-দখলে তা পুনরুদ্ধার করা প্রয়োজন রয়েছে। এখানে বৃক্ষরোপন করা হবে। রেলপথের দু’ধার বনজ বৃক্ষ থাকবে। বাংলাদেশে বনভূমির ২৫ শতাংশে উন্নীত হবে। তবেই জীবন ও প্রকৃতি নিরাপদ থাকবে। সর্বোপরি দুর্যোগ, দুর্বিপাক, বন্যা, খরা, মহামারী মোকাবিলায় শক্তি অর্জন করা সম্ভব হবে।এসময় মেয়র বিভিন্ন বনজ, ফলজ ও ওষধি গাছের চারা বিতরণ ও রোপন করেন।