বাবর আজম ও ফখর জামানের ব্যাটিং তাণ্ডবে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ২-১ ব্যবধানে জিতল পাকিস্তান। বুধবার সেঞ্চুরিয়নের স্পোর্টস পার্কে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে পাকিস্তান। উদ্বোধনীতে ২১.২ ওভারে ১১২ রানের জুটি গড়েন ইমাম-উল-হক ও ফখর জামান। ৭৩ বল খেলে ৩টি বাউন্ডারিতে ৫৭  রান করে ফেরেন ইমাম।

এরপর অধিনায়ক বাবর আজমকে সঙ্গে নিয়ে ৯০ বলে ৯৪ রানের জুটি গড়েন ফখর। দলীয় ২০৬ রানে দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরেন ফখর। তার আগে ১০৫ বলে ৯টি চার ও তিন ছক্কায় ১০১ রান করেন তিনি। এর আগের ম্যাচে ১৫৫ বলে ১৯৩ রানের অবিশ্বস্য ইনিংস খেলেও দলকে জয়ের বন্দরে নিতে পারেননি ফখর।

ফখর জামান, আউট হওয়ার পর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় পাকিস্তান। ইনিংসের শেষ বলে আউট হন বাবর। তার আগে ৮২ বলে সাত চার ও তিন ছক্কায় খেলেন ৯৪ রানের বিধ্বংসী ইনিংস। ফখর-বাবর ইমামের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৭ উইকেটে ৩২০ রানের পাহাড় গড়ে পাকিস্তান।

জিতলে সিরিজ নিশ্চিত, এমন কঠিন সমীকরণের ম্যাচে টার্গেট তাড়া করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ৪৯.৩ ওভারে ২৯২ রানে অলআউট হয় স্বাগতিক দক্ষিণ আফিকা। ২৮ রানের জয়ে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে নিশ্চিত করে পাকিস্তান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
পাকিস্তান: ৫০ ওভারে ৩২০/৭ (ইমাম ৫৭, ফখর ১০১, বাবর ৯৪, রিজওয়ান ২, সরফরাজ ১৩, ফাহিম ১, নওয়াজ ৪, হাসান ৩২; মারক্রাম ১০-০-৪৮-২, হেনড্রিকস ৭-০-৩৮-০, সিপামলা ৬-০-৫০-০, ডুপাভিলন ৫-০-৩০-০, ফেলুকওয়ায়ো ৪-০-৩৭-১, মহারাজ ১০-১-৪৫-৩, স্মাটস ৮-০-৬৭-১)।

দক্ষিণ আফ্রিকা: ৪৯.৩ ওভারে ২৯২ (মালান ৭০, মারক্রাম ১৮, স্মাটস ১৭, বাভুমা ২০, ভেরেইন ৬২, ক্লাসেন ৪, ফেলুকওয়ায়ো ৫৪, মহারাজ ৫, হেনড্রিকস ১, সিপামলা ৪*, ডুপাভিলন ১৭; আফ্রিদি ৯.৩-০-৫৮-৩, হাসান ১০-০-৭৬-১, রউফ ৯-১-৪৫-২, উসমান ৯-০-৪৮-১, নওয়াজ ৭-০-৩৪-৩, ফাহিম ৫-০-৩০-০)।

ফল: পাকিস্তান ২৮ রানে জয়ী
সিরিজ: ৩ ম্যাচের সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতেছে পাকিস্তান
ম্যান অব দা ম্যাচ: বাবর আজম
ম্যান অব দা সিরিজ: ফখর জামান।