অগ্রহায়ণের শুরুতে হঠাৎ করেই দেশে বাড়তে শুরু করেছে শীতের দাপট। লাফিয়ে লাফিয়ে কমছে তাপমাত্রাও। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ দশমিক ৬ ডিগ্রি রেকর্ড করা হয়েছে উত্তরের জেলা হিমালয়কন্যা পঞ্চগড়ে। সেখানে গত দুই সপ্তাহ ধরে হ্রাস পাচ্ছে তাপমাত্রা।

আজ বুধবার (২৫ নভেম্বর) সকাল ৯টায় পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ১০ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এর আগে সকাল ৬টায় ১০ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়। পরে তাপমাত্রা হ্রাস পেয়ে ১০ দশমিক ৬ ডিগ্রিতে নামে। এটিই আজ সারাদেশের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বলে আবহাওয়া অফিস নিশ্চিত করেছে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, হিমালয়ের অতি কাছে পঞ্চগড় অবস্থিত হওয়ায় সারা দেশের মধ্যে পঞ্চগড়ে শীতের তাপমাত্রা নিম্ন থাকে এবং মৌসুমে এ জেলায় প্রথম শীত নেমে যায়। সন্ধ্যা থেকে সকাল পর্যন্ত কুয়াশা ও শীত পড়ে আবার বেলা বাড়ার সাথে সাথে আলো দেখা গেলেও শীতের তীব্রতা যেন থেকেই যাচ্ছে।

এদিকে জেলা শহরের রিকশাচালক আমিনুল ইসলাম জানান, শীতের কারণে সন্ধ্যা থেকে সকাল পর্যন্ত অনেক শীত ও কুয়াশা পড়ে। মানুষ তেমন বাইরে বের হয় না। যার কারণে যাত্রী না পেয়ে বেকার বসে থাকতে হয়।

এদিকে তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ্ জানান, আজ পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় সারাদেশের ও মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১০ দশমকি ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস; যা সারাদেশের মধ্যে সর্বনিম্ন।

সূত্র: কালেরকন্ঠ