তোমাকে ভুলতে আর কত দিন?
আর কত! দিন,রাত- বেরাতের খেয়ালে
নিজেকে ধুঁকে ধুঁকে বয়ে বেড়াতে হবে
ভ্রুকুটি আখি যুগলের কোণে মিথ্যে ছলে
বয়ে নিয়ে বেড়াতে হবে তোমার সেই
ওষ্ঠ প্রেমের উদ্ভট খিনখিনে ঋণ।
তোমাকে ভুলতে আর কত দিন? আর কত দিন?
আমার রক্ত বাহু শীতল হয়ে আসে
ভয়ের ত্রাসে ঘুম ভেঙে যায় এক নিমিষেই।
তোমার কথা মনে আসতেই আমার
ভেতরের সব শব্দ বিদায় নেয়।
থরথর করে কাঁপতে থাকি অকাতরে
ভেতরের বয়ে চলা প্রবল বাতাসে।
যখনি মনে পড়ে ঘুমঘোরে, তন্দ্রাচ্ছন্নে
চিৎকার করে হাতড়াতে থাকি
তোমার মুখ, নাক, ঠোঁট আর চুলের গোছা
আর তোমার প্রেমের উষ্ণ গন্ধ।
আমি সব জেনে বুঝে আর জ্ঞাত স্বরে
চক্ষু যুগলের সম্যকে তুমি আসতেই
আমি এক অদ্ভুত রকমের পাগল হয়ে যাই।
ভুলি লাজ, ভুলি সমাজ, ভুলি নিন্দা,
আর বিত্ত বিকট প্রেমের বয়ে চলা বাসনা।
তোমার কি সুখ মেলেনি আজও!
আমাকে উপেক্ষার পাত্রে ছুড়ে ফেলে?
আমার ব্যস্ত সময়ের সারি সারি গানে
তুমি বিরহের সাবিত্রী হয়ে আছো ছেয়ে।
জ্বলন দহনের হিসেব কষিনি আমি
শুধু জ্বলেছি আমি আর পুড়েছি।
তোমাকে ভুলতে কত! মাধুরীর তুলতুলে গালে
উষ্ণ চুম্বনে আর কোলের আদরে পড়ে থেকেছি
কত! রাত, কত! দিন আর কত! ভোর।
তোমাকে ভোলা হয়না, ভুলতে পারিনা।
বন্ধকী মনের সবটুকুতে যে তোমার চাষ
তোমার আবাস সেখানে অহর্নিশি রাত।
তোমাকে ভুলতে আর কতদিন?
তবে কী এজীবনে আর ভোলা হবে না?
তবে কী এজীবনে আর পাওয়া হবে না?

আসিফ ইকবাল আরিফ
সহকারী অধ্যাপক, নৃবিজ্ঞান বিভাগ, জাককানইবি, ত্রিশাল, ময়মনসিংহ।