ময়মনসিংহ জেলা, প্রতিনিধিঃ

ময়মনসিংহে তরুণ প্রজন্মের সংগঠন নবছায়া’র  আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘মেধা বিকাশ অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতা-২০২০’। সারাদেশের কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয় এই কুইজ প্রতিযোগিতায়।

পূর্ব নির্ধারিত গুগল ফর্মের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের শিক্ষার্থীরা কুইজে রেজিষ্ট্রেশন করার সুযোগ পায়। ৫ জুলাই বিকাল  চারটায় অনলাইন মাধ্যমে রেজিষ্ট্রেশনকৃত সকলকে কুইজ পরিক্ষায়  অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়া হয়। চারটি বিষয়ে বিভক্ত করে ৫০ নম্বরের বহুনির্বাচনি প্রশ্ন সাজানো হয় যেখানে  যুক্ত করা হয় সাধারণ জ্ঞান, ইংরেজি, বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি। প্রতিটি সঠিক উত্তরের জন্য  ১ নম্বর ও প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য .২৫ নম্বর কর্তন করা হয়। নির্ধারিত সময় শেষে কুইজের প্রশ্নপত্রের লিংক সয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ হয়ে যায়। শুধুমাত্র  সঠিক সময়ের মধ্যে উত্তর প্রদানকারীদের উত্তরপত্র মূল্যায়নের জন্য বিবেচিত হয়।

কুইজে সর্বোচ্চ নম্বর প্রাপ্তির ভিত্তিতে সেরা পাঁচজন কে বিজয়ী ঘোষনা করা হয়। সেখানে ১ম স্থান অর্জন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী -জাহিদ হাসান, ২য় স্থান  একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী -মোঃ আশিক মিয়া, ৩য় স্থান অর্জন করেন- মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র- আকাশ কুমার ঘোষ, ৪র্থ স্থান ইডেন মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী মৌ রানী ঘোষ এবং ৫ম স্থান অর্জন করেন- পাবনা মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী অভিতোষ চক্রবর্তী। বিজয়ী পাঁচ শিক্ষার্থী  স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নবছায়া’র পক্ষ থেকে পেয়েছেন ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট সহ শুভেচ্ছা পুরস্কার  যা কুরিয়ারের মাধ্যমে জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহে পৌঁছে দেওয়া হয় বিজয়ীদের স্ব স্ব ঠিকানায়৷ এছাড়াও বেশি নম্বর প্রাপ্তির ভিত্তিতে এক তৃতীয়াংশ অংশগ্রহণকারীকে প্রদান করা হয় অনলাইন সার্টিফিকেট।

কুইজ সম্পর্কে জানতে চাইলে বিজয়ী ঢাবিয়ান শিক্ষার্থী মোঃ আশিক মিয়া  মুঠোফোনে বলেন-  ‘নবছায়া সংগঠনের অনলাইন কুইজে বিজয়ী হতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত’। এই আয়োজনটিতে অংশগ্রহনকৃত সকলেই তাদের মেধা যাচাইয়ের সুযোগ পেয়েছে যার একমাত্র প্রশংসার দাবীদার নবছায়া”৷ ভবিষ্যতে এরকম আরো শিক্ষামূলক কুইজের আয়োজন করতে নবছায়া কতৃপক্ষের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি৷

নবছায়া সংগঠনের কার্যনির্বাহী সদস্য, রাফিকুর রহমান রাফিক বলেন-  দেশের শিক্ষার্থীদের করোনাকালীন ঘরবন্দী, অবসর সময়কে কাজে লাগাতেই মেধা বিকাশ কুইজের আয়োজন, যেখান থেকে  অংশগ্রহনকারীরা যাচাই করতে পেরেছে নিজেদের মেধার গন্ডি৷

সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী দেলোয়ার হোসেন রনি বলেন-  “এই অনলাইন কুইজের মাধ্যমে আমরা তরুণপ্রজন্মের মেধাবী মুখগুলোর স্থবির হয়ে যাওয়া পড়াশোনাকে একটুখানি সচল করার চেষ্টা করেছি, ভবিষ্যতেও এইরকম আয়োজন অব্যাহত থাকবে”।  তিনি আরো বলেন, “নবছায়া’ হলো একটি স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক  সংগঠন যেটি অসহায়ের স্বার্থে  কাজ করে থাকে”। সমাজের অন্ধকারকে আলোতে রুপান্তরিত করার স্বার্থে সমাজের সকলকে নবছায়া’র সাথে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।