করোনাকালীন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি বিভিন্ন কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে

ঢাকা, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :                                                           

করোনা ভাইরাস মহামারিজনিত সংকটে সারা বিশ্ব আজ বিপর্যস্ত। এ সংকটকালীন সময়ে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি বাংলাদেশের সকল মাধ্যমের শিল্পীদের সুরক্ষা প্রদানের জন্য শিল্পীদের পাশে দাঁড়িয়েছে। মানুষকে সচেতন ও দায়িত্বশীল করার অভিপ্রায়ে দেশের সকল মাধ্যমের শিল্পীদের নিয়ে ‘Art Against Corona’ শীর্ষক সামাজিক ও সাংস্কৃতিক আন্দোলন গড়ে তোলার প্রত্যয় নিয়ে কাজ করছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি। ইতোমধ্যে দেশব্যাপী কবিতা, চলচ্চিত্র, অভিনয়, সংগীত, যন্ত্রসংগীত, নৃত্যসহ সকল মাধ্যমের শিল্পীদেরকে নিয়ে অনলাইনে অনুষ্ঠান আয়োজন অব্যাহত আছে।

করোনা মহমারির পরিস্থিতির শুরু থেকেই নিজস্ব ব্যবস্থায় ঢাকাসহ সকল জেলায় ত্রাণ বিতরণ, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রদত্ত অসচ্ছল শিল্পীদের ভাতা প্রদানে সহযোগিতা করাসহ শিল্পীদের নিয়ে জেলা ভিত্তিক সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে আসছে। একইসাথে একাডেমির সকল প্রশিক্ষণ কার্যক্রম অনলাইনে ডিজিটাল শ্রেণিকক্ষের মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছে। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি প্রতিদিন বিকাল ৫টায় দেশের বরেণ্য ও বিশিষ্ট শিল্পীদের নিয়ে অনলাইনে অনুষ্ঠান প্রচার করে থাকে। নিয়মিত এই আয়োজনে এ পর্যন্ত তিন শতাধিক শিল্পী অংশগ্রহণ করেছেন।

এছাড়াও বিশেষ বিশেষ আয়োজনের মাধ্যমে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু এবং ক্ষৃদ্র নৃগোষ্ঠী সম্প্রদায়ের শিল্পীদের পরিবেশনা নিয়ে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

বাংলাদেশে শিল্পকলা একাডেমির ফেসবুক পেইজ এবং ইউটিউব চ্যানেলে প্রায় ২ লক্ষ ফলোয়ার রয়েছে। যেখানে প্রতিদিন ১০-১৫ হাজার দর্শক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। করোনা ভাইরাস মহামারিজনিত সংকটকালীন সময়ে মানুষের কাছে সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডকে পৌঁছে দিতে একাডেমি ইতোপূর্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানের ধারণকৃত ভিডিও সম্প্রচারের ব্যবস্থা নিয়েছে।

প্রয়াত মনীষীদের জীবন ভিত্তিক প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রচার, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছোট গল্প অবলম্বনে নির্মিত চারটি চলচ্চিত্র রাজপুত্তুর, ডাকঘর, মাধো ও বিশ্বম্ভর বাবুর দায় নিয়ে উৎসব আয়োজন, পুতুলনাট্য উৎসব আয়োজন, নজরুল জয়ন্তীতে অনুষ্ঠান সম্প্রচার, বিশ্ব সংগীত দিবস উদযাপন করা হয়েছে।

এছাড়াও শিশু শিল্পীদের নিয়ে অনুষ্ঠান, ঋতুভিত্তিক অনুষ্ঠান বর্ষামঙ্গল, প্রবীণদের নিয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ঈদের বিশেষ আয়োজনসহ আগস্ট মাসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এঁর শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০২০ উপলক্ষে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি মাসব্যাপী ‘শিল্পের আলোয় বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক অনুষ্ঠান আয়োজনের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

সচেতনতামূলক প্রচারণার জন্য সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ১৪ জন বিশিষ্ট শিল্পী ও নাট্য ব্যক্তিত্বের করোনা ভাইরাস সতর্কীকরণ ভিডিও নির্মাণ ও প্রচারের ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় একাডেমি কর্তৃক নির্মিত বিশিষ্ট মনীষীদের জীবন ভিত্তিক ডকুমেন্টারি প্রচারিত হয়েছে।

এছাড়াও করোনা মহামারির শুরু থেকে একাডেমির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দুইদিনের বেতনের সমপরিমান অর্থ দিয়ে ঢাকায় ৫০০ অসচ্ছল পরিবারকে খাদ্য সহযোগিতা করা হয়েছে। প্রতিটি জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে শিল্পী ও কলাকুশলীদের জন্য সুরক্ষা সামগ্রী ক্রয় এবং অসচ্ছল মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য বিশেষ বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে।