আগৈলঝাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি : বরিশালের আগৈলঝাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি অবমাননার মামলায় উপজেলা সদরের ঐতিহ্যবাহী শতবর্ষী বিদ্যাপীঠ ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমীর (বিএইচপি একাডেমী)র প্রধান শিক্ষক ও আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক যতীন্ত্র নাথ মিস্ত্রীকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ।
এর আগে প্রধান শিক্ষক যতীন্ত্র নাথ মিস্ত্রীকে গত বছর ১২ডিসেম্বর উপজেলা তৎকালীন নির্বাহী অফিসার ও বিদ্যালয় এডহক পরিচালনা কমিটির সভাপতি বিপুল চন্দ্র দাস এডহক কমিটির জরুরী সভায় মাউশি’র এসআরও নং-৯৯/আইন/২০০৯ এর বিধি ৩৯ এর (২) মোতাবেক এবং ৪১ (ঘ) এর আলোকে ৫০৩নং স্বারকে প্রধান শিক্ষক যতীন্ত্র নাথ মিস্ত্রীকে চাকুরী থেকে সাময়িক বরখাস্ত করেছিলেন।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই নাসির উদ্দিনের আদালতে দাখিল করা অভিযোগপত্রে জানা গেছে, ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমীর প্রধান শিক্ষক থাকা অবস্থায় যতীন্দ্র নাথ মিস্ত্রী ২০১৯সালের ১ডিসেম্বর থেকে ১২ডিসেম্বররের মধ্যে যে কোন সময়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি যথাযথ মর্যাদার সাথে স্থাপন না করে ইচ্ছাকৃতভাবে মানহানী/ অপমানজনক অবস্থায় ছাত্রীদের কমন রুমের টয়লেটে প্রবেশ পথের উপরে দেয়ালে স্থাপন করে রাখেন। ছবি অবমাননার বিষয়ে ওই বিদ্যালয়ের বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থীরা প্রধান শিক্ষক যতীন্ত্র নাথ মিস্ত্রীর কাছে জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ে কোন কর্ণপাত না করে তার বিদ্যালয় তার ইচ্ছানুযায়ি পরিচালিত হবে বলে শিক্ষার্থীদের জানিয়ে দেন।
সুত্র মতে, ছবি অবমাননার ঘটনায় ১২ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত স্কুল পরীক্ষার পরে শিক্ষার্থীরা স্কুল ক্যাম্পাস ও উপজেলা সদরে প্রধান শিক্ষক যতীন্ত্র নাথ মিস্ত্রীর অপসারণ ও শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিদ্যালয় এডহক পরিচালনা কমিটির সভাপতি তৎকালীন ইউএনও বিপুল চন্দ্র দাসের কাছে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের উপস্থিতিতে ১২দফা দাবি পেশ করেন।
ওই ঘটনায় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নজরুল ইসলামকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করেন ইউএনও। শিক্ষা অফিসার তিন দিনের তদন্তে ঘটনার সত্যতা পেয়ে ইউএনও’র কাছে রিপোর্ট দাখিল করেছিলেন। ইউএনও বিপুল চন্দ্র দাস নিজেও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘটনার সত্যতা পেয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য থানায় সুপারিশ করে পত্র প্রেরণ করেছিলেন।
রাষ্ট্রীয় ছবি অবমাননার ঘটনায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের পক্ষে বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী ফুল্লশ্রী গ্রামের ইদ্রিস হাওলাদারের ছেলে খায়রুল বাশার বাপ্পি বাদী হয়ে ১৩ডিসেম্বর প্রধান শিক্ষক যতীন্ত্র নাথ মিস্ত্রীসহ অজ্ঞাতনামা লোকজনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় ছবি অবমাননার অভিযোগ এনে আগৈলঝাড়া থানায় ১৪৩/ ৫০০/ ৫০৪ ধারায় মামলা দায়ের করেন, মামলা নং-৬ (১৩.১২.১৯)।
ওই মামলায় দীর্ঘ ছয় মাস তদন্ত শেষে মামলার বাদীসহ ১২জনের স্বাক্ষ্য গ্রহন করে তদন্তকারী অফিসার এসআই নাসির উদ্দিন সংশ্লিষ্ঠ আদালতের জামিনে থাকা প্রধান শিক্ষক যতীন্ত্র নাথ মিস্ত্রীর বিরুদ্ধে ৪৪৮/৫০০/৫০৪ ধারায় বিজ্ঞ আদালতে মঙ্গলবার অভিযোগপত্র (নংÑ৬৯) দাখিল করেছেন।
এ বিষয়ে ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমীর পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রইচ সেরনিয়াবাত বলেন, জাতির পিতা ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি রাস্ট্রীয় অববমানা করা নিঃসন্দেহে জাতির জন্য চরম অবমামনা ও অসম্মান করা। প্রধান শিক্ষক যতীন্ত্র নাথ মিস্ত্রী সাময়িক বরখাস্ত অবস্থায় তদন্ত করে পুলিশ অভিযোগপত্র দাখিল করায় এখন বিধি অনুযায়ি স্কুল কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলেও জানান তিনি।